picsart 23 11 30 12 41 57 687

শাহীন আরমান কক্সবাজার।

কক্সবাজারের ঈদগাঁও বাসস্টেশনের আরফাত শপিং কমপ্লেক্স থেকে দাবিকৃত চাঁদা না দেয়ায় হামলা – ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় ২ জন গুরুতর আহত হয়েছে।
বুধবার ( ২৯ নভেম্বর) সকাল ১১ টায় বাসস্টেশনের আরফাত শপিং কমপ্লেক্সে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী ঈদগাঁও থানায় এজাহার দায়ের করেছে।
এজাহার সূত্রে জানা যায়, ঈদগাঁও বাসস্টেশনের আরফাত শপিং কমপ্লেক্সের মালিক আবদু রশিদ থেকে দীর্ঘদিন ধরে একটি প্রভাবশালী চক্র বিভিন্ন অজুহাতে মোটা অংকের চাঁদা দাবি করে আসছে। দাবিকৃত চাঁদা না দেয়ায় ঘটনার দিন ঈদগাঁও বাসস্টেশন এলাকার তারেক ও ফেরদৌস আলম ফিরোজের নেতৃত্বে ১০/১৫ জনের সংঘবদ্ধ একটি চক্র হামলা- ভাংচুর ও লুটপাট চালায়। এ সময় আরফাত শপিং কমপ্লেক্সের মালিক আবদু রশিদ ও ছেলে আব্দুল্লাহ এগিয়ে আসলে তাদের কে ধারালো অস্ত্র ও হাতুড়ি দিয়ে আঘাত করে।

এতে আবদু রশিদ ও ছেলে আব্দুল্লাহ গুরুতর আহত হয়।স্থানীয় লোকজন আহতদের উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়।
এ সময় নগদ টাকা ও মালামাল লুট করে নিয়ে যায় এ চক্রটি এবং দাবিকৃত চাঁদা না দিলে উক্ত মার্কেট জবর দখল করার হুমকি দেয়।। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে হামলাকারীরা দ্রুত পালিয়ে যায়।
আহত আবদু রশিদ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন দীর্ঘদিন ধরে এ চক্রটি মোটা অংকের চাঁদা দাবি করে আসছে এবং দাবিকৃত চাঁদা না দিলে জবর দখলের হুমকি দেয়। আমাদের ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে এবং ভাংচুর ও লুটপাট চালায়।এ ঘটনায় থানায় চাঁদাবাজির এজাহার দায়ের করা হয়েছে।

অভিযোগ উঠা তারেক ও ফেরদৌসের সাথে যোগাযোগ করা হলে চাঁদাবাজির বিষয়টি অস্বীকার করে এবং মারামারির বিষয়টি আপোষ মিমাংসার চেষ্টা চলছে বলে জানান।
এ ব্যাপারে ঈদগাঁও থানার অফিসার ইনচার্জ গোলাম কবিরের সাথে কথা হলে এজাহারের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন চাঁদাবাজির বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে তবে মারামারি ঘটনা ঘটেছে।

সচেতন মহল ঈদগাঁও বাসস্টেশনে দিন দুপুরে এ ঘটনায় জড়িতদের আইনের আওতায় আনার জোর দাবি জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *