মোঃ ইকবাল মোরশেদ স্টাফ রিপোর্টার।

নোয়াখালীর সুবর্ণচরে এক কিশোরীকে (১৭) অপহরণের পর সাতদিন আটকে রেখে একাধিকবার ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় নাজিম উদ্দিন (২২) নামের এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

রোববার (১৭ জুলাই) বিকেলে আদালতের মাধ্যমে তাকে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে। গ্রেফতার নাজিম সদর উপজেলার পূর্ব শুল্লকিয়া গ্রামের মো. জসিম উদ্দিন ব্যাপারীর ছেলে।
এর আগে শনিবার (১৬ জুলাই) সন্ধ্যায় চরজব্বর ইউনিয়নের চেউয়াখালী বাজার এলাকা থেকে নাজিম উদ্দিনকে গ্রেফতার ও কিশোরীকে উদ্ধার করা হয়। পরে রাতে ভুক্তভোগী কিশোরীর বাবা থানায় অপহরণ ও ধর্ষণের মামলা করেন।

এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ১০ জুলাই (রোববার) সন্ধ্যায় জাহাজমারা এলাকার নিজ বাড়ি থেকে নানাবাড়ি যাওয়ার উদ্দেশ্যে বের হয় ওই কিশোরী। সন্ধ্যা ৭টার দিকে সে চেওয়াখালী বাজারের কাছাকাছি পৌঁছালে একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশায় তুলে তাকে প্রথমে মাইজদীর দিকে নিয়ে যায় নাজিম উদ্দিন। পরে ওই কিশোরীকে সোনাইমুড়ী উপজেলার বজরা ইউনিয়নের একটি বাড়িতে নিয়ে আটকে রাখে এবং ১০ জুলাই রোববার রাত থেকে ১৬ জুলাই শনিবার পর্যন্ত একাধিকবার ধর্ষণ করেন নাজিম।
শনিবার (১৬ জুলাই) সন্ধ্যায় বিষয়টি থানায় জানায় কিশোরীর পরিবার। খবর পেয়ে পুলিশ জাহাজমারা এলাকার প্রভিটা ফ্যাক্টরির সামনে থেকে অভিযুক্ত নাজিমকে গ্রেফতার ও কিশোরীকে উদ্ধার করে।

চরজব্বার থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. জাকির হোসেন বলেন, ধর্ষণ মামলার আসামি নাজিম উদ্দিনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। রোববার বিকেলে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়। পাশাপাশি তরুণীকে উদ্ধারের স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.