পিরোজপুর প্রতিনিধি ঃ

পিরোজপুরের কাউখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের প্রশাসক মোসাঃ খালেদা খাতুন রেখার বিরুদ্ধে মিথ্যা তথ্য প্রকাশ করে মানববন্ধন ও সংবাদ সম্মেলন করে বিভ্রান্তি ছড়ানোর প্রতিবাদে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যবৃন্দ এক প্রতিবাদ সমবেশ গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলা মুজিব চত্বরে অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে উপস্থিত মুক্তিযোদ্ধারা উল্লেখ করেন সরকারি হাটের জায়গা অবৈধ দখল উচ্ছেদ, দূর্নীতি মুক্ত প্রশাসন প্রতিষ্ঠা, সরকারি খাস জমির অবৈধ দখল উচ্ছেদ করে মুজিব বর্ষের ঘর নির্মান, রাতের আধারে সরকারি পুকুর ভরাট কাজে বাধা প্রদান, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন জনগণের ইচ্ছা অনুযায়ী সঠিক ভাবে ভোটাধিকার প্রয়োগ নিশ্চিত করা সহ উপজেলাকে একটি মডেল আধুনিক উপজেলায় পরিনত করার উদ্যোগ নেওয়ায় এক শ্রেনীর স্বার্থান্বেষী মহল তাকে অপসারণ করার দাবিতে নানান মিথ্যা অভিযোগ এনে মানববন্ধন করে। নানাভাবে অপমানিত লাঞ্ছিত করার পায়তারা করছে আমরা মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সকলে প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাই।
এ সময় মুক্তিযোদ্ধা সাবেক উপজেলা ডেপুটি কমান্ডার আলী হোসেন তালুকদারের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও বীর মুক্তিযোদ্ধা এ.কে.এম আব্দুস শহীদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা এডভোকেট পরিতোষ সমদ্দার, বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক আঃ জিয়াদ, আওয়ামীলীগ নেতা এডভোকেট আউয়াল, মুক্তিযোদ্ধা হেমায়েত উদ্দিন তালুকদার, প্রমুখ।
সমাবেশে উপজেলার বিভিন্ন স্থান থেকে মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের পরিবারের সদস্যরা অংশগ্রহণ করেন। এ সময় বক্তারা বলেন স্বাধীনতার পরে কাউখালীতে খালেদা খাতুন রেখার মতো সৎ ও পরিশ্রমই নির্বাহী অফিসার কখনো আসেনি। নিরহংকার সাধারণ মানুষের প্রিয় নির্বাহী অফিসার কে অপবাদ ও ষড়যন্ত্র করে কোন ক্ষতি করা যাবে না। সরকারি জায়গা অবৈধ দখলমুক্ত করা ও দুর্নীতির মূল উপড়ে ফেলতে মুক্তিযোদ্ধারা সব সময় তার ভালো কাজের পাশে থাকবে বলেও ঘোষণা দেন।
ষড়যন্ত্রকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর হুঁশিয়ারি দেন বক্তারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.