সাইফুল আলম , কেন্দুয়া প্রতিনিধি:

নেত্রকোণার কেন্দুয়ায় রবিবার (৩০ মে) উপজেলা নির্বাহী অফিসার ( ইউএনও) মাহমুদা বেগমের অভিযান পরিচালনায় ও মেডিকেল প্র‍্যাকটিস এবং বেসরকারি ক্লিনিক ও ল্যাবরেটরি (নিয়ন্ত্রণ) অধ্যাদেশ- ১৯৮২ অনুযায়ী, অভিযান চলাকালীন সময়ে নিম্মের প্রতিষ্ঠানের প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দেখাতে ব্যর্থ হওয়ায়- নিউ সন্ধানী ডায়াগনস্টিক সেন্টার থেকে ৩০ হাজার, সাদিয়া ডায়াগনস্টিক সেন্টার ৫ হাজার, আল মন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার ৫ হাজার, মর্ডান ডায়াগনস্টিক সেন্টার ৫ হাজার ও কেন্দুয়া আধুনিক চক্ষু হাসপাতাল থেকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন এবং নিউ মর্ডান ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে সিলগালা করা হয়।

উল্লেখ্য গতকাল (২৯ মে) পপুলার ডায়গনস্টি সেন্টার থেকে ৫ হাজার, খান ঔষধালয় থেকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন এবং কেন্দুয়া চক্ষু হাসপাতাল, চেক-আপ ডায়গনস্টিক সেন্টার ও খান ডায়গনস্টিক সেন্টার কে সিলগালা করা হয়।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাহমুদা বেগমের সাথে এ বিষয়ে মোবাইলে কথা হলে তিনি বলেন, যেগুলোকে জরিমানা করা হয়েছে তাদেরকে নির্দিষ্ট সময় দেয়া হয়েছে। নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত তাদের প্রতিষ্ঠানের স্বাভাবিক কার্যক্রম চালিয়ে যেতে পারবেন, তারপরও যদি ব্যর্থ হয় তাহলে আরো বেশি জরিমানা বা সিলগালা হতে পারে।
এসময় কেন্দুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প. কর্মকর্তা ডাঃ এবাদুর রহমান, কেন্দুয়া থানার পুলিশ সদস্যগণ, প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.