কেন্দুয়া প্রতিনিধিঃ

নেত্রকোণার কেন্দুয়ায় বীর মুক্তিযোদ্ধা মো: আমির উদ্দিন এবং তাঁর পরিবারকে খুনজখম করার উদ্দেশ্যে রাতে বাড়িঘরে হামলা ও ভাঙচুর করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন।

এ ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার নওপাড়া ইউনিয়নের জুড়াইল গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা মো: আমির উদ্দিনের বাড়িতে, গত ৩ জুন প্রায় রাত ১টার দিকে।

এ ঘটনায় বীর মুক্তিযোদ্ধা আমির উদ্দিন বাদী হয়ে ১৭ জুন ৪ জনকে আসামী করে কেন্দুয়া থানায় মামলা দায়ের করেন।

মামলার বিবরণে জানা যায়, প্রতিপক্ষ আমার প্রতিবেশী, আলমগীর গংদের সাথে দীর্ঘদিন ধরে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে জমিজমা নিয়ে মামলা মোকদ্দমা চলে আসছিল।

উক্ত পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ঘটনার তারিখ ও সময়ে খুনজখমের উদ্দেশ্য মামলার বাদী মুক্তিযোদ্ধা আমির উদ্দিনের বসত ঘরের সামনে এসে উৎপেতে বসে থেকে অতর্কিত ভাবে হামলা ও ভাংচুর করে আলমগীর গংরা।

এ বিষয়ে মুক্তিযোদ্ধা আমির উদ্দিন জানান, আমি প্রকৃতির ডাকে সাড়া দেওয়ার জন্য গুম হতে উঠে ঘরের দরজা খোলার সাথে সাথেই বিবাদীরা আমার বসত ঘরে অনধিকার প্রবেশ করে খুনজখম করার উদ্দেশ্যে আমাকে সহ আমার স্ত্রী ১নং সাক্ষীকে লোহার রড ও লাঠিসোটা দ্বারা বেধরক পিঠিয়ে শরীরের বিভিন্ন স্থানে নীলাফুলা জখম করে এবং বসত ঘরের ড্রেসিং টেবিল এর গ্লাস ভাংচুর করে প্রায় ৫ হাজার টাকার ক্ষতি সাধন করে।

তখন আমাদের ডাক চিৎকারে বাড়ির আশেপাশের লোকজন এসে জড়ো হয়ে ফিরাইলে আসামীরা চলে যাওয়ার সময় আমাদের খুনজখম করত: লাশ গুম করে ফেলবে বলে হুমকি দিয়ে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। আমি এবং আমার স্ত্রী স্থানীয় ভাবে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছি।

এ ব্যাপারে কেন্দুয়া থানার এস আই আব্দুল আউয়াল জানান, আসামীরা বিজ্ঞ আদালত থেকে জামিনে মুক্ত আছেন। তদন্ত পূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Don`t copy text!