কেন্দুয়া (নেত্রকোনা) প্রতিনিধিঃ

নেত্রকোনার কেন্দুয়ায় বৃহস্পতিবার (২ জুন) রাতে উপজেলার বলাইশিমুল গ্রামে ভুমিহীন ও গৃহহীনদের নবনির্মিত ঘর রাতের আধারে ভেঙ্গে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা। খবর পেয়ে রাতেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন ইউএনও মাহমুদা বেগম ও কেন্দুয়া থানা ওসি আলী হোসেন পি.পি.এম।

জানা যায়, বলাইশিমুল গ্রামের হাওড়ে ১ একর ৮৭ শতাংশ জায়গা জুড়ে একটি খেলার মাঠ রয়েছে। ইতিমধ্যে মাঠে চার পাশে কিছু জায়গা দখল করে নিয়ে গেছে পাশের ক্ষেতের মালিকরা। উপজেলা প্রশাসন মাঠের জায়গাটি দখল মুক্তকরণসহ এক পাশে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর ২৩টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের জন্য প্রকল্প গ্রহণ করে। ঘর নির্মাণকাজের প্রস্তুতি জেনে এলাকাবাসী মাঠ রক্ষার দাবিতে গত ২৮মে মাঠেই মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে। পরেরদিন ২৯মে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম, ইউএনও মাহমুদা বেগম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র আসাদুল হক ভূঁইয়া, ওসি আলী হোসেন মাঠে যান এবং এলাকাবাসীর সাথে মতবিনিময় করে মাঠে পূর্ব ও উত্তর পাশে ঘর নির্মাণের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।
এদিকে ২ জুন বৃহস্পতিবার রাতে দুর্বৃত্তরা প্রকল্পে এসে পাহারারত গ্রাম পুলিশের প্রতি অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে নির্মাণাধীন ঘর ভাঙচুর করে চলে যায় তারা।
এব্যাপারে ইউএনও মাহমুদা বেগম পাহারারত গ্রাম পুলিশের বরাত দিয়ে জানান, ঘর নির্মাণকাজে সার্বক্ষণিক গ্রাম পুলিশ পাহারায় রাখা হয়েছিল। বৃহস্পতিবার রাতে দুর্বৃত্তরা এসে গ্রাম পুলিশদের অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে নির্মাণাধীন ঘর ভাঙচুর করেছে। এব্যাপারে আইনগত পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

এঘটনায় বৃহস্পতিবার রাতেই কেন্দুয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আলী হোসেন পিপিএম এর নির্দেশে পুলিশ অভিযান চালিয়ে বলাইশিমুল ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আলী আকবর তালুকদার মল্লিক ও সাবেক ইউপি সদস্য হায়দার আলীকে গ্রেফতার করেন।
সংবাদ পেয়ে কেন্দুয়া আটপাড়া আসনের সংসদ সদস্য অসীম কুমার উকিল, নেত্রকোনা জেলা প্রশাসক অন্জ্ঞনা খান মজলিস, কেন্দুয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম, ইউএনও মাহমুদা বেগম বৃষ্টিতে ভিজেই শুক্রবার সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং জড়িতদের আইনের আওতায় আনার জন্য পুলিশকে নির্দেশ প্রদান করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.