received 1139170024169541

স্টাফ রিপোর্টার

পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে ব্রীজ নির্মাণ কাজে অনিয়মের বিষয়ে ভিডিও বক্তব্য নেওয়ার সময় দৈনিক আজাদী অনলাইন ও মাল্টিমিডিয়া সাতকানিয়া- লোহাগাড়া প্রতিনিধি সাংবাদিক আব্দুল আউয়াল জনির মোবাইল ভাংচুর ও হুমকি দেওয়ায় ঠিকাদার মনজুর আলমকে নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়ার ৭২ ঘন্টার আল্টিমেটাম দিয়েছেন লোহাগাড়া- সাতকানিয়ার কর্মরত সাংবাদিকরা।
৪মার্চ সোমবার বিকেলে লোহাগাড়া বটতলি মোটর স্টেশনে সাংবাদিকের উপর হামলা, মোবাইল ভাংচুর ও হুমকির প্রতিবাদে কর্মরত সাংবাদিকদের ব্যানারে মানববন্ধন ও সমাবেশে আল্টিমেটাম দেওয়া হয়।
লোহাগাড়া প্রেস ক্লাবের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলামের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন লোহাগাড়া প্রেস ক্লাব সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ। মাই টিভি প্রতিনিধি শাহজাদা মিনহাজের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন লোহাগাড়া সাংবাদিক ফোরামের সাধারণ সম্পাদক ও দৈনিক কালবেলা সাতকানিয়া প্রতিনিধি অধ্যাপক মুহাম্মদ আব্দুল খালেক, লোহাগাড়া প্রেস ক্লাবের সহ-সভাপতি অধ্যাপক পুষ্পেন চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক জাহেদুল ইসলাম, অর্থ সম্পাদক খোকন সুশীল, দৈনিক যুগাস্তর প্রতিনিধি নাজিম উদ্দিন রানা, দৈনিক নতুন সময় প্রতিনিধি জাবের বিন রহমান আরজু।
বক্তারা বলেন, সাংবাদিকরা জাতির বিবেক। সমাজের অনিয়ম, দূর্নীতি, উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রার খবর তুলে ধরা সাংবাদিকের কাজ। বিশ্ব ব্যাংকের অর্থায়নে লোহাগাড়ার পদুয়া ধলিবিলা হাঙ্গরখালে নির্মিনাধীন ব্রীজের কাজে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ উঠায় সরেজমিন প্রতিবেদন তুলে ধরতে নির্মাণ কাজের সাব-ঠিকাদার বহুল আলোচিত মনজুর আলম প্রকাশ মনজুর কন্ট্রাক্টারের বক্তব্য মোবাইলে ভিডিও ধারণ করার সময় লোহাগাড়া উপজেলা পরিষদ কার্যালয়ের সামনে সাংবাদিক আব্দুল আউয়াল জনির উপর পরিকল্পিতভাবে হামলা, মোবাইল ভাংচুর ও প্রাণনাশের হুমকি এটি একটি ন্যাক্কারজনক ঘটনা। এর আগেও ঠিকাদার মনজুর কক্সবাজারে মডেল মসজিদ নির্মাণে অনিয়মের সংবাদ সংগ্রহ করতে গেলে সাংবাদিকের উপর হামলা করে পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হয়ে জেল থেকে বের হয়ে আবারো সাংবাদিকের উপর হামলা চালিয়েছেন। তিনি যদি আগামী ৭২ ঘন্টার মধ্যে প্রকাশ্যে ক্ষমা না চান, তাকে আইনের আওতায় আনার জন্য প্রশাসনের প্রতি জোর দাবী জানান। পাশাপাশি অভিযুক্ত ঠিকাদার মনজুর আলমের ঠিকাদারী লাইসেন্স বাতিলসহ বিশ্ব ব্যাংকের অর্থায়নে নির্মিতব্য ব্রীজ নির্মাণ কাজ থেকে তার টেন্ডার বাতিলের জোর দাবী জানানো হয়। অন্যথায়, লোহাগাড়ায় কর্মরত সাংবাদিকরাসহ দক্ষিণ চট্টগ্রামে কর্মরত সকল সাংবাদিক কঠোর কর্মসুচি পালন করতে বাধ্য হবে বলে হুশিয়ারি দেওয়া হয়।
এসময় উপস্থিত ছিলেন, দৈনিক শাহ আমানত পত্রিকার প্রতিনিধি শামসুল আলম রানা, সাংবাদিক মাহমদুল হক, লোহাগাড়া প্রেস ক্লাবের ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক আতাউর রহমান মাসুদ, কার্য-নির্বাহী সদস্য আরিফুল ইসলাম রিফাত, ডা: মোহাম্মদ কামাল, বাংলাদেশ টুডে প্রতিনিধি মাস্টার জমির উদ্দিন, গ্লোবাল টিভি প্রতিনিধি এরশাদ আলম, দৈনিক সূর্যোদয় প্রতিনিধি আবুল কালাম, বিজয় টিভি প্রতিনিধি মোক্তার হোসেন, সাতকানিয়া লোহাগাড়া বার্তা পত্রিকার বার্তা সম্পাদক ও সোনার মানুষ বইয়ের সম্পাদক মোহাম্মদ আব্বাস উদ্দিন, দৈনিক ইনফো বাংলা প্রতিনিধি মোহাম্মদ হোসাইন, দৈনিক জনবানী প্রতিনিধি মিনহাজ বাঙ্গালী, মোহাম্মদ আক্তার হোসাইন, কামরুল ইসলাম, সুমন বড়ুয়া ও ওসমান গণি প্রমূখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *