img 20231228 wa0000

নিজস্ব প্রতিবেদন

চট্টগ্রাম নগরীর খুলশী এলাকায় সদ্য ধর্মান্তরিত এক নারীর উপর ১০ দিন যাবত স্বামীর পরিবার কর্তৃক অমানুষিক নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনার বিবরনে জানা যায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন মেধাবী ছাত্রী সদ্য ইসলাম ধর্ম গ্রহণকারী প্রফেসর ইসমত আফিয়া ইরা(মায়া)’র সাথে মুসলিম পরিবারের সন্তান মোঃ মাহফুজুর রহমানের সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। পরবর্তী বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বী ইসমত আফিয়া ইরা ধর্মান্তরিত হয়ে মুসলিম ধর্ম গ্রহণকরে উভয়ে বিবাহ বন্ধনের আবদ্ধ হন । পরবর্তীতে প্রফেসর ইসমত আফিয়া অন্তঃসত্তা হয়ে পড়লে বিষয়টি স্বামী ও তার পরিবারকে জানানো হয়। স্বামী ও পরিবারকে আনুষ্ঠানিকভাবে ঘরে তুলে নেওয়ার কথা বললে, স্বামী বিভিন্ন তালবাহানা দেখিয়ে পালিয়ে বেড়ান। পরবর্তীতে স্ত্রীর স্বীকৃতির দাবিতে শ্বশুরবাড়ি খুলসি এক নং সড়কের বদিউল আলমের বিল্ডিং এ অবস্থান নেন। সেখানে অবস্থানরত অবস্থায় দীর্ঘ ১০ দিন যাবত অমানুষিক নির্যাতনের শিকার হন। বিষয়টি এলাকা ও বিভিন্ন গণমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে। এলাকাবাসী ও প্রশাসনের নীরব ভূমিকায় হতাশা ব্যক্ত করে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার কমিশন চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিটি এগিয়ে এসে। অমানুষিক নির্যাতনকারী স্বামী মোঃ মাহফুজুর রহমান, পিতা মোহাম্মদ বদিউল আলম ও মাতা মালেকা আক্তার লাকি চট্টগ্রাম নগরীর খুলশী লসী ১নং সড়কের বদিউল আলম বিল্ডিং’র বাসিন্দা কর্তৃক দীর্ঘ ১০ দিন নির্যাতনকারীদের দ্রুত আইনের আওতায় আনার দাবিতে। ২৮ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার বেলা ৩ টায় চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব চত্বরে এক মানববন্ধনের আয়োজন করে।আন্তর্জাতিক মানবাধিকার কমিশন চট্টগ্রাম উত্তর, দক্ষিণ ও মহানগরের সমন্বয়ক আমির হোসেন খানের সভাপতিত্বে ও চট্টগ্রাম বিভাগীয় আহ্বায়ক কমিটির সদস্য আরঙ্গজেব সম্রাটের সঞ্চালনায়, এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আন্তর্জাতিক মানবাধিকার কমিশন বাংলাদেশ চ্যাপ্টারের সভাপতি বাংলাদেশ পরিবেশ সুরক্ষা আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সভাপতি এম এ হাসান রাজুএ প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আন্তর্জাতিক মানবাধিকার কমিশন চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিটি’র সদস্য সচিব এস এম কামরুল ইসলাম, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিভাগীয় কমিটির আহবায়ক মানবাধিকার নেত্রী তাহেরা আক্তার শারমিন, সি: যুগ্ন আহবায়ক তৌহিদুল ইসলাম, যুগ্ন আহ্বায়ক আব্দুর রহিম, ইঞ্জিনিয়ার আবু তৈয়ব, কেন্দ্রীয় সদস্য হাজী নূর মোহাম্মদ, সাংবাদিক ইসমাইল ইমন,জসিম উদ্দিন চৌং মিন্টু, মোঃ জানে আলম ও হাসান চৌধুরী দিপু প্রমুখ। মানববন্ধনে মানবাধিকার নেতৃবৃন্দ বলেন বাংলাদেশের আনাছে কানাচে প্রতিটি এলাকায় আজ মানবাধিকার লঙ্ঘিত হচ্ছে বিশেষ করে অসহায় নারীরা নির্যাতনের শিকার হচ্ছে। অনেক কিছু মিডিয়াতে প্রকাশিত হলেও অজানা কারনে অনেক নির্যাতনের ঘটনা অপ্রকাশিত থেকে যায়। তেমনি চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলার সাবেক সংখ্যালঘু চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের মেধাবী ছাত্রী ভালোবাসা টানে ধর্মান্তরিত হয়ে মোঃ মাহফুজুর রহমানকে স্বামী হিসেবে বরণ করে নেওয়ার পরেও পরিবারের নিকট স্ত্রী স্বীকৃতি নিয়ে উপস্থিত হলে স্বামী ও পরিবার কর্তৃক অমানবিক যে নির্যাতনের শিকার হয়েছে তা এলাকার আশেপাশের সচেতন নাগরিক , ইলেকট্রিক, প্রিন্ট মিডিয়া ও প্রশাসন জেনেও কোন ধরনের ভূমিকা না রাখায় আজ মানবাধিকার প্রশ্নবিদ্ধ। অনতিবিলম্বে নির্যাতিতা ইসমত আখিয়া ইরার বিষয়ে তার স্বামীর পরিবার ও প্রশাসন কোন ব্যবস্থা না নিলে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার কমিশন চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিটি গণ অনশনের কর্মসূচি দিবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *