এমদাদুল হক মাসুম, ডোমার প্রতিনিধিঃ
টিকিট অনিয়ম ধরতে নীলফামারীর ডোমার রেল স্টেশনে অভিযান চালিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন। যাত্রীদের অভিযোগের ভিত্তিতে ০৬ জুন (সোমবার) ডোমার রেল স্টেশনে এই অভিযান চালায় তারা।
অভিযানে স্টেশনের বুকিং সহকারী রাশেদের বিরুদ্ধে টিকিট কালোবাজারির সম্পৃক্ততা রয়েছে বলে জানান দুদক টিম। দুদক রংপুর বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারি পরিচালক হোসাইন শরিফ এর নেতৃত্বে ৪ সদস্যের একটি দল ডোমার স্টেশনে অভিযান পরিচালনা করে। এসময় স্টেশনের বুকিং অফিস ও টিকেট কাউন্টারে তল্লাশী করেন তারা। টিকিট রেজিস্টার খাতা পরিক্ষা করে, দেশের প্রধান বিচারপতি, উপজেলা আ’লীগ সভাপতি সহ এলাকার রাজনৈতিক নেতা এবং কিছু প্রভাবশালী ব্যাক্তিদের নামে একাধীক টিকিট বুকিং এর প্রমান পাওয়া যায়।
এ ব্যাপারে দুদকের বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারি পরিচালক হোসাইন শরিফ বলেন, আমরা সকাল থেকে যাত্রীবেশে ডোমার রেল স্টেশনে অভিযান পরিচালনা করে আসছি। সাধারন যাত্রীবেশে আমরা রেল স্টেশন এলাকার কালোবাজারি লাকড়ি ব্যবসায়ী লিটনের কাছে নীলফামারী থেকে ঢাকার ৩টা টিকিট কিনেছি। লিটন, মতি সহ অনেকেই এই কালোবাজারির সাথে জড়িত রয়েছেন।
তিনি আরো বলেন, আমাদের কাছে অভিযোগ এসেছিলো স্টেশনে টিকিট কালোবাজারি হয় এবং সাধারন যাত্রী টিকিট পায় না। সরেজমিনে আমরা উল্লেখিত অভিযোগ এবং বুকিং সহকারী রাশেদের সম্পৃক্ত থাকার সত্যতা পেয়েছি।
ডোমার স্টেশন মাস্টার আশরাফুল ইসলাম বলেন, অপরাধীর কঠিন শাস্তি দেয়া হোক।
#

Leave a Reply

Your email address will not be published.