নয়ন দাস,কুড়িগ্রাম জেলা প্রতিনিধিঃ

প্রথমবারের মতো ডিজিটাল ব্যবস্থাপনায় বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সমাধি ও কবর ব্যবস্থাপনার উদ্বোধন করা হয়েছে। রোববার বিকালে কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে কবর ব্যবস্থাপনায় ডিজিটাল পদ্ধতির ব্যবহারের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ রেজাউল করিম।

‘অপ্রতিরোধ্য কুড়িগ্রাম’ নামক সামাজিক সংগঠন কবর ব্যবস্থাপনায় ডিজিটাল পদ্ধতির ব্যবহারের উদ্যোগ গ্রহণ করে।

আয়োজকরা জানান, আইসিটি খাতে সুদূরপ্রসারি উন্নয়ন ত্বরান্বিত করার লক্ষ্যে এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক ঘোষিত রূপকল্প ২০৪১ বাস্তবায়নে বিশেষ ভূমিকা রাখার পাশাপাশি জাতির সর্বকালের শ্রেষ্ঠসন্তান বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সমাধি ও তাদের বীরত্বের কাহিনীগুলো আগামী প্রজন্মের কাছে তুলে ধরার উদ্দেশ্যে কবর ডিজিটাল কবর ব্যবস্থাপনার উদ্যোগ নিয়েছে অপ্রতিরোধ্য কুড়িগ্রাম। শুধু মুক্তিযোদ্ধা নন, সাধারণ মানুষের কবরগুলোকেও এই প্রকল্পের অন্তর্ভুক্ত করা হবে। এতে মৃত ব্যক্তির নিকটাত্মীয়রা সহজেই তাদের পরিবারের মৃত সদস্যদের কবর খুঁজে পাবেন।

তারা জানান, অনেক সময় কবরস্থানগুলোতে এক কবরের ওপরে আরেক কবর দিলে পূর্বের কবর খুঁজে পাওয়া যায় না। এমনকি সেখানে কার কবর ছিল সেই চিহ্নও থাকে না। কিন্তু কবর ব্যবস্থাপনায় ডিজিটাল পদ্ধতি ব্যবহারের ফলে এ সমস্যা থেকে পরিত্রাণ মিলবে।

অপ্রতিরোধ্য কুড়িগ্রামের প্রতিষ্ঠাতা ও সংগঠনটির সভপতি অন্তু চৌধুরী জানান, প্রাথমিকভাবে জেলা শহরের কেন্দ্রীয় কবরস্থানের ১ হাজার ৩৯৬ জন কবরবাসী এবং জেলার ফুলবাড়ী উপজেলার ৮৬ জন বীর মুক্তিযোদ্ধার তথ্য ডিজিটালাইজ করা হয়েছে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- কুড়িগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. মঞ্জুর-এ-মুর্শেদ, কুড়িগ্রাম সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ মির্জা নাসির উদ্দিন, পাবলিক প্রসিকিউটর আব্রাহাম লিংকন, কুড়িগ্রাম পৌর মেয়র কাজিউল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রুহুল আমিন, জেলা শিক্ষা অফিসার শামসুল ইসলাম প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Don`t copy text!