নরসিংদী জেলা থেকে



নরসিংদীতে সাবেক ইউপি সদস্য সুজিত সূত্রধরকে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) দুপুরে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে সাংবাদিক সম্মেলনে এই তথ্য জানিয়েছেন পুলিশ সুপার কাজী আশরাফুল আজিম।

এর আগে, বুধবার (২২ জুন) রাত সাড়ে আটটার দিকে নরসিংদী উপশহরের হাজীপুর কাঠবাজারে সাবেক ইউপি সদস্য সুজিত সূত্রধরকে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা করে সন্ত্রাসীরা। ওই সময় ধারালো অস্ত্রের আঘাতে নিহতের ছেলে সুজন সূত্রধরসহ দুইজন আহতও হয়েছেন।

এই ঘটনায় গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, দোকানের বার্নিশ মিস্ত্রী সদর উপজেলার বুদিয়ামারা গ্রামের হযরত আলীর ছেলে মাসুম মিয়া (২৬), একই গ্রামের ফজলুর রহমানের ছেলে শিমুল মাহমুদ (২২) ও নবীপুর গ্রামের রহিম মিয়ার ছেলে সোহাগ মিয়া (২৩)।

পুলিশ সুপার কাজী আশরাফুল আজিম জানিয়েছেন, এক সপ্তাহ পূর্বে সুজিত মেম্বারের ছেলে সুজন সূত্রধরের সঙ্গে দোকানের বার্নিশ মিস্ত্রী মাসুমের কথা কাটাকাটি হয়। এই নিয়ে সুজন সূত্রধর বার্নিশ মিস্ত্রী মাসুমকে চড়-থাপ্পড় দিলে তিনি দোকানের মালিক সুজিত সূত্রধরের নিকট বিচারপ্রার্থী হন।

তিনি জানান, রোববার (১৯ জুন) সন্ধ্যার পর বিষয়টি নিয়ে সালিশের কথা ছিল কিন্তু মাসুম সালিশে না বসে ১০-১২ জন সন্ত্রাসী নিয়ে ধারালো অস্ত্রশস্ত্রসহ সুজিত মেম্বার ও তার ছেলের ওপর গত রাতে হামলা চালায়। এতে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে সুজিত মেম্বার নিহত হন।

পুলিশ সুপার আরও জানান, ঘটনার পর পরই পুলিশ তথ্য প্রযুক্তি ও গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ঘটনার সাথে জড়িত মূল আসামি মাসুম ও তার দুই সহযোগী শিমুল ও সোহাগকে গ্রেপ্তার করেছে।

এ সময় তাদের কাছ থেকে ঘটনায় ব্যবহৃত রক্তমাখা ছুরি ও রক্তমাখা কাঠও উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানান পুলিশ সুপার।

এ ব্যাপারে থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও জানা গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Don`t copy text!