received 887719166488058

নিজস্ব প্রতিবেদক :

নাটোরে অপহরণের পরে ধর্ষণ; প্রধান পলাতক আসামী মোঃ ফজলুল (১৯)কে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।

সোমবার দিবাগত রাত আনুমানিক একটার দিকে নাটোর জেলার গুরুদাসপুর উপজেলার দৌলতপুর গ্রাম এলাকায় র‌্যাব-৫সিপিসি-২ নাটোর ক্যাম্পের একটি অভিযানিক দল গোয়েন্দা তথ্য ও তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে অভিযান পরিচালনা করে ঘটনার সাথে জড়িত আসামী মোঃ ফজলুল (১৯) নাকে এক যুবক কে আটক করেছে। আটককৃত আসামী মোঃ ফজলুল সে নাটোর জেলার সিংড়া উপজেলার বন্দর গ্রামের আব্দুল খালেক এর ছেলে।

মামলা সূত্রে জানা যায়,
আসামী মোঃ ফজলুল ও অন্যন্যা আসামীগন বখাটে প্রকৃতির।

কিছুদিন যাবত আসামী ভিকটিম কে রাস্তাঘাটে উত্তাক্ত কু-প্রস্তাব দিত। গত ১৭/০২/২৪ ইংরেজি তারিখ দিবাগত রাত আনুমানিক নয়টার দিকে ভিকটিম তার বান্ধবীদের সাথে গ্রামের গোদাই নদীর ধারে পিকনিক করাকালীন সময় প্রধান আসামী মোঃ ফজলুল ও অন্যন্যা আসামীগন ভিকটিম কে একটু দূরে ডেকে নিয়ে যায়।

ভিকটিম সরল বিশ্বাসে তাদের ডাকে সাড়া দিলে প্রধান আসামী মোঃ ফজলুল ও অন্যন্য আসামীরা ভিকটিম এর মুখ চেপে জাপ্টাইয়া ধরে অপহরণ করে নাটোর সদর থানাধীন দিঘাপতিয়া ইউনিয়নের পুরাতন বাকশোর গ্রামের শ্রী অনিল চন্দ্র দাস এর বাড়ির পিছনে সরিষা ক্ষেত্রে নিয়ে গিয়ে অন্যন্যা আসামিদের সহযোগীতায় প্রধান আসামী ফজলুল ভিকটিমের ইচ্ছের বিরুদ্ধে ধর্ষণ করে ভিকটিম কে ঘটনাস্থলে ফেলে রেখে পালিয়ে চলে যায়।
পরে ভিকটিমের মা বাদি হয়ে নাটোর সদর থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন।

মামলার তদন্তকারী অফিসার আসামীদের গ্রেফতারের জন্য সিপিসি-২ নাটোর, র‌্যাব-৫ বরাবর অধিযাচন প্রদান করেন। তৎপ্রেক্ষিতে র‌্যাব গোয়েন্দা নজরদারি বৃদ্ধিসহ ছায়াতদন্ত শুরু করে।র‌্যাব-৫-সিপিসি-নাটোর ক্যাম্পের একটি অভিযানিক দল অভিযান পরিচালনা করে ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামিকে আটক করে।

উপরোক্ত ঘটনায় গ্রেফতারকৃত আসামীকে নাটোর সদর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

র‌্যাব-৫-সিপিসি-২ কে তথ্য দিন – মাদক , অস্ত্রধারী ও জঙ্গিমুক্ত বাংলাদেশ গঠনে অংশ নিন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *