এম শাহজাহান মিয়া শেরপুর জেলা প্রতিনিধিঃ
নাতনির জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন সাংবাদিক নানা তিনি বলেন, তার ২য় মেয়ের ঘরে একটা কন্যা সন্তান জন্ম হয় গত ১২/২/২২ ইং তারিখে, কিন্তু দুঃখের বিষয় হচ্ছে, শিশুটি জন্মের পর থেকেই বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়। কিন্তু কোনো চিকিৎসাতেই সুফল না পাওয়ায় তিনি দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন।
নবাগত নাতনি যেন পৃথিবীতে এসেই তার মন জয় করেছেন, হাজারো কষ্টের মাঝেও যখন সে তার নাতনি রওজা মনির মুখের দিকে তাকালে, ভুলে যেতো সকল দুঃখের কথা। কিন্তু- বিধাতার লিখন কি? কেউ খন্ডাতে পারে?শারীরিক অসুস্থতায় জন্মের ১০/১৫ দিন পর থেকেই রওজা মনির মুখের হাসি যেন মলিন হতে শুরু হয়।
এমনতাবস্থায়,ঝিনাইগাতী ও শেরপুর জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে কিছুদিন চিকিৎসার পর একটু সুস্থ হলেও পরবর্তী কয়েকদিন পরেই আবারও সেই একি পরিস্থিতি। শরীরের চামড়া উঠে যাচ্ছে ও শরীর পানিতে ফুলে গিয়েছে। তিনি বলেন, তার নাতনি বর্তমানে ময়মনসিংহের সদর হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন। শরীরে পানির অতিরিক্ত চাপের কারণে – ইনজেকশন বা স্যালাইন পুস করা যাচ্ছে না। এমনকি শিশুটির শরীরে রক্ত শূন্যতা দেখা যাচ্ছে। এমন অবস্থায় ডাঃ বলেছেন, আমরা যথাসাধ্য চেষ্টা করছি- আপনারা আল্লাহ কে ডাকুন, বাঁচানোর মালিক একমাত্র আল্লাহ্। তাই একমাত্র নাতনির জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়ার দরখাস্ত করেছেন নবাগত শিশুটির নানা ভাই – সাংবাদিক, মোঃ জুলহাস উদ্দিন হিরো। তিনি বলেন, দেশবাসীর দোয়ার উছিলায়, মহান আল্লাহ তার নাতনি রওজা মনির মুখের হাসি পূনরায় ফিরিয়ে দিবেন ইনশাআল্লাহ্।

Leave a Reply

Your email address will not be published.