মোঃ ইকবাল মোরশেদ স্টাফ রিপোর্টার।

নোয়াখালীতে পৃথক ঘটনায় স্কুলছাত্রীসহ দুজনের মৃত্যু, মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার (৪ জুন) সকালে সোনাইমুড়ী ও কবিরহাট থেকে মরদেহ দুটি উদ্ধার করা হয়।

সোনাইমুড়ীতে নিহত জান্নাতুল ফেরদৌস রিয়া (১৪)। সে মোটুবী গ্রামের মুন্সি বাড়ির সৌদি প্রবাসী মোঃ জামাল উদ্দিনের মেয়ে। অপরদিকে কবিরহাটে নিহত মোঃ আবুল কাসেম সোহাগ (২৬)। তিনি বড় রামদেবপুর গ্রামের মোঃ হাফিজ উল্যাহ ওরফে মোঃ ছুট্টি মিয়ার ছেলে।
সোনাইমুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ হারুনুর রশিদ বলেন,
রিয়ার মরদেহ উদ্ধার করে নোয়াখালীর ২৫০ শয্যার জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।
তার পারিবারিক সূত্র জানায়, পড়ালেখার জন্য বাবা জামাল উদ্দিন সৌদি আরব থেকে মেয়েকে শাসন করায় সে অভিমান করে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে।
কবিরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ রফিকুল ইসলাম বলেন, সোহাগ কুমিল্লায় ক্যাবল অপারেটরের চাকরি করেন। ১ জুন তিনি বাড়ি আসেন।
শুক্রবার বিকেলে বসতঘরের পাশে ফ্রিজে সংযোগ দেওয়ার সময় বিদুৎস্পৃষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলে মারা যান।
এ ব্যাপারে থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.