সোহেল রানা,রাজারহাটঃ


কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলার ছিনাই ইউনিয়নের রামকার্জ্জী পাইকপাড়া গ্রামে পূর্ব শত্রুতার জেরে ধরে শহিদুল নামে এক যুবককে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেন বাবুল ও সাবলু বাহিনী আন্যায় আর অত্যাচারে অতিষ্ঠ এলাকাবাসী।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়,পূর্ব শত্রুতার জের ধরে বাবুল ও সাবলু’র হুকুমে গত সোমবার ২৩ মে রাত ১০ ঘটিকায় সময় ভুক্তভোগীর বসত বাড়ির সামনে পাঁকা রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থায় বাবলু ও সাবলু তার বাহিনীর সদস্য নুব্বর আলী,
নুরবানু,ফরিদুল,সোহেল মিয়া
সহ দেশীয় ধারালো অস্ত্র দা, বেকী ও লাঠি সোটা সহ ভুক্তভোগীর পরিবারের উপর অতর্কিত হামলা চালায়।

বেপরোয়া বাবলু লাঠি দিয়ে ভুক্তভোগীকে মারলে তার ডান চোখের নিচে জখম হয় ও ডান হাতের দুইটা আঙ্গুল ফেটে রক্তাক্ত জখম হয়।


আহত শহিদুল ইসলাম প্রাণে বাঁচতে চিৎকার করিলে স্হানীয় লাল মিয়া,আব্দুল কুদ্দুস ও আমিনুরের সহযোগিতায় শহিদুল ইসলামকে উদ্ধার করে রাজারহাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। কর্তব্যরত ডাক্তার জানায়,রোগীর ডান চোখের নিচে জখম হয়েছে দুই পায়ে গুরুতর আঘাত পেয়েছে বর্তমানে সে আশাস্কামুক্ত রয়েছে।

এ বিষয়ে রাজারহাট থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ রাজু সরকার বলেন,অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.