মোঃ আল আমিন, সিংড়া নাটোরঃ
তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক আদর্শ ভোগের নয় ত্যাগের রাজনীতি করে গেছেন। আর তারই পথে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। মাত্র ১৩ বছরে শুধু সিংড়া নয় বাংলাদেশকে শতভাগ বিদ্যুতের আলোয় আলোকিত করেছেন।

পলক আরো বলেন, ২০০১-২০০৬ সাল পর্যন্ত চলনবিল বাসীর অন্ধকার সময় কেটেছে। উন্নয়ন ছিলো না, মানুষের নিরাপত্তা ছিলো না। গ্রামে গ্রামে গণ ডাকাতি হতো মানুষদের আতঙ্কে রাখতো,সন্ধার পরে আমরা চলনবিলের মানুষ বাড়ী থেকে বের হতে পারতাম না। রাতের বেলায় হারিকেন, হেজাক নিয়ে টস লাইট নিয়ে পাহাড়া দিতে হয়েছে গ্রামে গ্রামে। আর আজকে চলনবিলের মানুষদের জননেত্রী শেখ হাসিনা উন্নয়নের পাশাপাশি সুশাসন উপহার দিয়েছে। একদিকে আমাদের পাকা রাস্তা, আপর দিকে ঘরে ঘরে বিদুৎ,এবং নিরাপত্তা নিশ্চিত করেছেন। আমাদের গ্রামে গ্রামে আধুনিক ইন্টারনেটের সংযোগ, স্কুল,কলেজ, মাদ্রাসা,মসজিদ, মন্দিরে, উন্নত পাকা প্রাথনার ব্যবস্থা এবং সাথে সাথে আমাদের ভবিষ্যৎ সন্তানেরা যেন প্রযুক্তি শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে তাদের আত্মকর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করতে পারে, তার জন্য স্কুলে স্কুলে শেখ রাসেল ডিজিটাল কম্পিউটার ল্যাব স্থাপন করা হয়েছে। ইউনিয়ন পরিষদে ডিজিটাল সেন্টার থেকে হাজার রকমের সেবা জনগণ পাচ্ছে যাতে করে একটা সরকারি সেবা পাওয়ার জন্য একটা গ্রামের মানুষকে শহর মুখী হতে না হয়। তার ব্যবস্থা করে দিয়েছেন জননেত্রী শেখ হাসিনা । বঙ্গবন্ধু বলেছিলেন বাংলাদেশের মহা মূল্যবান সম্পদ দুইটা, একটা বাংলার মাটি, আর একটা হলো বাংলার সোনার মানুষ, বঙ্গবন্ধু দেশের মানুষকে কখনো বোঝা মনে করেননি।

সোমবার দুপুর ১২ টায় নাটোরের সিংড়া উপজেলার কুমগ্রাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে ইটালী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ আয়োজিত জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা ও দোয়া মাহফিলের প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী পলক এসব কথা বলেন।

সভায় ইটালী ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি মতিউর রহমানের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আ’লীগের সভাপতি ওহিদুর রহমান শেখ, সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র জান্নাতুল ফেরদৌস, ইটালী ইউপি চেয়ারম্যান আরিফুল ইসলাম, ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক বেলাল হোসেন প্রমূখ।

এর আগে সকাল ১০টায় সিংড়া উপজেলা চত্বরে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম, পৌর মেয়র জান্নাতুল ফেরদৌস, ইউএনও এম.এম সামিরুল ইসলামসহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসনের বিভিন্ন কর্মকর্তারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Don`t copy text!