ইন্দ্রজিৎ টিকাদার,

বটিয়াঘাটা প্রতিনিধি ঃ

“নিরাপদ মাছে ভরবো দেশ, বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে
জাতীয় সংসদের হুইপ পঞ্চানন বিশ্বাস(এমপি) বলেন, বাংলাদেশ আজ প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বিশ্বে মডেল হিসেবে প্রসংশিত হচ্ছে । বিশ্ব মহামারী করোনা ভাইরাস দূরদর্শিতার সাথে মোকাবেলা করে ও ইউক্রেন রাশিয়ার যুদ্ধে বিশ্বের সকল দেশের মূদ্রাস্থিতী ও খাদ্য সংকট ভিতরেও প্রধানমন্ত্রীর বলিষ্ঠ নেতৃত্বে কৃষি, মৎস্য ও প্রানী ক্ষাতকে স্ব-স্ব দপ্তরের গবেষণাকে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে কাজে লাগিয়ে ওই সকল খাতে স্বয়ংসম্পূতা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে । দেশ আজ খাদ্য,মাছ ও পশু পালনের মাধ্যমে আমাদের দেশের পুষ্টির চাহিদা মিটিয়ে বিদেশে রপ্তানি করে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করতে সক্ষম হচ্ছে । পাশাপাশি দেশের যুবসমাজের বেকারত্ব ঘুচিয়েছে । বর্তমানে দেশে খাদ্য,মাছ ও পশু উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করলেও তা নিরাপদ কি না সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে । অর্থাৎ নিরাপদ খাদ্য উৎপাদন করতে হবে । গতকাল রবিবার সকাল ১০ টায় স্থানীয় উপজেলা পরিষদ অডিটরিয়াম কক্ষে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উদযাপন কমিটির আয়োজনে অনুষ্ঠিত জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ ২০২২ উদযাপন উপলক্ষ্যে রেলী, আলোচনা সভা ও মাছের পোনা অবমুক্ত,সম্মামনা স্বরূপ ক্রেষ্ট প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা গুলি বলেন। গত ২৩ জুলাই থেকে ২৯ জুলাই পর্যন্ত জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষ্যে দ্বিতীয় দিনে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মমিনুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যানদ্বয় নিতাই গাইন ও চঞ্চলা মন্ডল, কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মোঃ রবিউল ইসলাম,প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ প্রীতি লতা দাস । মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নারায়ন চন্দ্র মন্ডল’র সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ মনিরুল মামুন । অনুষ্ঠানে অন্যান্যের উপস্থিত উপস্থিত ছিলেন উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি প্রতাপ ঘোষ,সাধারণ সম্পাদক ইন্দ্রজিৎ টিকাদার, ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ আসাবুবুর রহমান আসাব, সহকারী মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ আমীর আলী, সাংবাদিক বিশ্বজিৎ মন্ডল,উত্তরণ ম্যানেজার মোকলেছুর রহমান, চাষী রিপন রায় সহ প্রান্তিক চাষীরা ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ । অনুষ্ঠানের পূর্বে এক বর্ণাঢ্য রেলি উপজেলা সদরের প্রধান প্রধান সড়ক সমূহ প্রদক্ষীন শেষে প্রধান অতিথি পরিষদের পুকুরে মাছের পোনা অবমুক্ত সহ সমাজ ও রাষ্ট্রের স্ব-স্ব জায়গায় থেকে অসামান্য অবদান রাখার স্বীকৃতি স্বরূপ সম্মামনা ক্রেষ্ট প্রদান করা হয় । ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.