i
রংপুরের বদরগঞ্জ উপজেলা বিষ্ণুপুর ইউনিয়নের বুজরক বাগবাড় গ্রামে ইউপিসদস্য মাজেদ আলী ও তার ছোট ভাই মজিদ নেতৃত্বে হামলা চালিয়ে প্রতিপক্ষ হাজী জয়নুল ইসলাম বাড়িসহ অন্তত ছয়টি বাড়িতে
ব্যপক হামলা ও লুটপাট চালিয়েছে।অভিযুক্ত ইউপি সদস্য বিষ্ণুপুর ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য।

অভিযোগ সূত্রে ও স্হানীয় ভাবে জানা গেছে, মূলত নির্বাচন কেন্দ্রীক দ্বন্দ্ব ও কিছুদিন আগে ১০৭ধারা মামলাকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটে।গত ১৩/০১/২৩ দিবাগত রাতে ছয়টি বাড়িতে ব্যপক হামলা চালায় শুধু হামলা চালায় তারা ক্ষান্ত হয়নি বাড়ির ও বাড়ির বাইরে
যা,যা,জিনিসপত্র ছিল সবই ভাংচুর ও লুটপাট চালায়।

ভুক্তভোগী হাজী জয়নুল ইসলাম বলেন, মাজেদ মেম্বার অত্যন্ত ভয়ানক প্রকৃত লোক সে সব কিছু করতে পারে।
আমার বসতবাড়িতে ১২বস্তা,আলু, গরুর একাধিক ফিডের বস্তা, বেশ কয়েকটি ছাগল,কৃষি কাজে ব্যবহৃত সকল জিনিস ও মাছের খামার থেকে মাছ লুট করে নিয়ে যায়। আমার ২৫লক্ষ টাকা মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। আমি এঘটনার সুষ্ঠু বিচার চাই প্রশাসন নিকট।

ভুক্তভোগী হাজী জয়নুল ইসলাম ছেলে শহিদুল ইসলাম বলেন, আমি রংপুরের শিক্ষানবিস আইন পেশায় জড়িত।বিগত নির্বাচনে মাজেদ আলীকে ভোট না দেয়ার পর থেকে একের পর এক হামলা ও লুটপাটের শিকার হচ্ছি।বুজরুক বাগবাড় গ্রামে আমার বড় ভাই বসবাস করে।গত শুক্রবার দিবাগত রাতে মাজেদ মেম্বার নেতৃত্বে যে হামলা হয়েছে তা ফিল্মে সচরাচর দেখা যায়। আমরা জেনেছি লুটপাট করা মালামাল ও মাছ পার্শ্ববতী উপজেলা পার্বতীপুর ও সৈয়দপুরে নিয়ে
বিক্রি করেছে।আমি ঘটনাটি তীব্র নিন্দা এর সুষ্ঠু নিরপেক্ষ বিচার চাই।
এবিষয়ে ইউপি সদস্য মাজেদ আলী বলেন,আমি ৪বারের সফল মেম্বার।আমি যদি খারাপ প্রকৃতি লোক হতাম তাহলে জনগন আমাকে ৪ বার মেম্বার করতো না
তিনি আরো বলেন,গত ইউপি নির্বাচনে আমার প্রতিপক্ষ প্রার্থীকে বিজয়াী করার জন্য শহিদুল ইসলাম ২০লক্ষ টাকা খরচ করেন। আমার জনপ্রিয়তা ঈশ্বান্বিত হয়ে ও আমাকে ফাঁসানোর জন্য আমার উপর দোষ চাপানো হচ্ছে।

বিষ্ণুপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফিন্দিউল হাসান শান্তু চৌধুরী বলেন, আমি বুজরুক বাগবাড় গ্রামে শান্তি সমৃদ্ধির লক্ষ্য দুই পক্ষকে ঐক্য থাকার জন্য বিনীত অনুরোধ করছি।বিষয়টি আমি সুষ্ঠু সমাধান করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

বদরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি হাবিবুর রহমান বলেন, দুই পক্ষের অভিযোগ পেয়েছি এছাড়াও বিষয়টি এমপি মহোদয় অবগত রয়েছে।তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা প্রদান করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Don`t copy text!