রাজশাহী বিভাগীয় ব্যুরো প্রধানঃ

দীর্ঘদিন থেকে ইয়াবা,ফেন্সিডিল,গাঁজা ও হেরোইনের ব্যবসা করে আসছেন স্বামী-স্ত্রী । বিভিন্ন সময়ে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে গ্রেপ্তার হয়েছে বহুবার। তবুও থেমে থাকেনি স্বামী-স্ত্রীর মাদক কারবার। আগে ছিলনা বাড়ি গাড়ি। তবে মাদকের ব্যবসা করে ফ্লাট বাড়ি, ট্রাক ও কয়েক বিঘা জমিও কিনেছেন। আইন প্রয়োগকারি সংস্থার কাছে এমন তথ্য দিয়েছেন স্থানীয়রা। সেই তথ্য ভিত্তিতে আবারো পুলিশের হাতে মাদক দ্রব্যসহ গ্রেপ্তার হয়েছেন স্বামী হোসেন আলী ও তার স্ত্রী সীমা বেগম।

মঙ্গলবার (৯ মে) রাত ১০টার দিকে নিজ বাড়ি থেকে ৩৭ গ্রাম হেরোইন ও ১৫০ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেটসহ মাদক ব্যবসায়ী স্বামী-স্ত্রীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তারা উপজেলার চকছাতারী গ্রামের বাসিন্দা।

জানা যায়, সীমা খাতুনের সিরাজগঞ্জ সদরের গারুদহ গ্রামের মৃত সোবাহান শেখের ছেলের সাথে বিয়ে হয়। বিয়ের কিছুদিন পর স্বামী হোসেন আলীকে নিয়ে বাঘা উপজেলার চকছাতারী গ্রামে পিতা সুলতান আলীর বাড়িতে ঘর জামাই থেকে সু-কৌশলে মাদক ব্যবসা করে। এলাকায় তারা চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী।

বাঘা থানার ওসি তদন্ত আবদুল করিম বলেন,স্বামী-স্ত্রী দীর্ঘদিন থেকে কৌশলে ইয়াবা, ফেন্সিডিল, গাঁজা ও হেরোইনের ব্যবসা করছিল। এমন তথ্যেও ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তিনি আরো জানান, তারা মাদক ব্যবসা করে ফ্লাট বাড়ি, ট্রাক ও কয়েক বিঘা জমি ক্রয় করেছে। তাদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য আইনে মামলা দিয়ে বুধবার আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Don`t copy text!