বালিয়াডাঙ্গী(ঠাকুরগাঁও)প্রতিনিধিঃ
ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায় মুক্তিযোদ্ধার দ্বিতীয় স্ত্রী মোছাঃ সালমা আকতার তার স্বামী প্রাপ্ত সরকারের সকল ধরনের সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত হওয়ার অভিযোগ করেছেন।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, আমার স্বামী মৃত্যু বরণ করার প্রায় ৯ বছর পেরিয়ে গেলেও আমার স্বামীর প্রথম স্ত্রী ও তার ছেলেমেয়েরা আমাকে আমার স্বামীর সকল সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত করছে।আমার স্বামী একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা তিনি মৃত্যু বরণ করার পর মুক্তিযোদ্ধা কল্যান ট্রাস্ট এর সন্মানী ভাতা দ্বিতৃয় স্ত্রী হিসেবে আমারও পাওয়ার কথা কিন্ত তারা আমাকে সকল ধরনের সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত করেছে আমি এখন মানবেতর জীবনযাপন করছি, আমি একজন মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী হিসেবে আজ আমি অবহেলিত।
আমি আমার স্বামীর মুক্তিযোদ্ধা কল্যান ট্রাস্টের সম্মানী ভাতা না পাওয়ায় গত ০৩/০৩/২২ তারিখে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা কল্যান ট্রাস্টের বরাবরে আমি একটি লিখিত আবেদন করি। তারই ধারাবাহিকতায় গত ০৪/০৪/২২ ইং তারিখে তদন্তের টিম প্রেরণ করেন। আমি এখন অপেক্ষায় আছি কি হয় দেখি

আমার স্বামী আমাকে বিয়ে করেছে আমার নামে ভোটার আইডি কার্ড আছে, বর্তমান চেয়ারম্যান এর দেওয়া ওয়ারিশন সনদপত্র আছে, প্রাপ্তন চেয়ারম্যান এর প্রত্যায়ন পত্র আছে,এতগুলো প্রমান থাকার পর ও তারা আমাকে স্বামীর সকল সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত করছে আমি সরকারের কাছে আকুল আবেদন জানাচ্ছি আমাকে আমার স্বামীর অধিকার ফিরিয়ে দিয়ে সরকারের দেওয়া সকল সুযোগ সুবিধা সমান ভাবে ভাগ করে দেওয়ার জন্য। মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী হিসেবে কেউ বিলাসী জীবন করবে আর কেউ না খেয়ে মানবেতর জীবনযাপন করবে এটা কেমন কথা আমি এর সুষ্ঠু বিচার চাই।

Leave a Reply

Your email address will not be published.