মোঃ শেখ শহীদুল্লাহ্ আল আজাদ. স্টাফ রিপোর্টারঃ

বিশ্বনবী হযরত মোহাম্মদ (সাঃ) ও মা হযরত আয়শা. (রাঃ) কে নিয়ে ভারতের বিজেপি নেতাদের চরম অশ্লীল ও অবমাননাকর কটুক্তির প্রতিবাদে রাষ্ট্রীয়ভাবে নিন্দার দাবীতে খুলনায় বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ শুক্রবার বিকেলে দলের নগর সভাপতি মুফতি আমানুল্লাহ’র সভাতিত্বে ও সেক্রেটারী শেখ মোঃ নাসির উদ্দিন, জেলা সেক্রেটারী হাফেজ আসাদুল্লাহ আল গালিবের পরিচালনায় এ বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত সমাবেশে বক্তারা বলেন, ভারতের এই ঘটনা বিশ্ব মুসলিম উম্মাহর হৃদয়ে রক্তক্ষরণ ঘটিয়েছে। এমন জঘন্যতম অন্যায় কোনোভাবেই মেনে নেয়া যায় না। বিশ্বনবীর অবমাননার ঘটনা অসভ্যতাকেও হার মানিয়েছে। ভারত সরকারকে এর চরম মূল্য দিতে হবে। প্রয়োজনে জীবন দিয়ে হলেও নবী (সঃ) এর মর্যাদা রক্ষা করবো, ইনশাআল্লাহ। উক্ত বিক্ষোভ সমাবেশে
বক্তারা আরো বলেন, নবী (সঃ) ও তার পরিবারের শানে এহেন অসভ্য কর্মকাণ্ডের জন্য সৌদী আরব, ওমান, বাহরাইন, জর্ডান, লিবিয়া, আফগানিস্তান, ইন্দোনেশিয়া, পাকিস্তান, কাতার, কুয়েত, ইরানসহ বিভিন্ন মুসলিম বিশ্ব রাষ্ট্রীয়ভাবে প্রতিবাদ জানালেও বিশ্বের অন্যতম মুসলিম প্রধান রাষ্ট্র বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে কোনো প্রতিবাদ জানানো হয়নি। আমরা বাংলাদেশ সরকারের কাছে রাষ্ট্রীয়ভাবে এর প্রতিবাদ জানানোর আহ্বান জানাচ্ছি। উক্ত সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন জেলা সভাপতি অধ্যাপক মাওলানা আব্দুল্লাহ ইমরান, মহানগর সহ-সভাপতি মুফতি মাহবুবুর রহমান, মাওলানা আবু সাইদ, মাওলানা মুজিবুর রহমান, ওলামা মাশায়েখ আইম্মা পরিষদের খুলনা জেলা সভাপতি মাওলানা শেখ আব্দুল্লাহ, খুলনা জেলা ইমাম পরিষদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাওলানা নাসির উদ্দিন কাসেমী, মাওঃ কেরামত আলী, শেখ হাসান ওবায়দুল করিম, মুফতি ইমরান হোসাইন, আলহাজ্ব মাওলানা দ্বীন ইসলাম, মুহা. সাইফুল ইসলাম, মাওলানা আসাদুল্লাহ হামিদি, মুফতী আশরাফুল ইসলাম, মোঃ আব্দুল্লাহ আল নোমান, গাজী ফেরদাউস সুমন, মাওলানা হারুন অর রশিদ, মাওলানা এস.কে নাজমুল হাসান, মুফতী শেখ আমীরুল ইসলাম, এইচ এম খালিদ সাইফুল্লাহ, আলহাজ্ব আমজাদ হোসেন, হাফেজ আব্দুল লতিফ, আলহাজ্ব আবু তাহের, মোল্লা রবিউল ইসলাম তুষার, নিজাম উদ্দিন মল্লিক, মোঃ মঈন উদ্দিন ভূঁইয়া, মাওলানা আব্দুস সাত্তার, মাওলানা হাফিজুর রহমান, হায়দার আলী, জিএম কিবরিয়া, আলহাজ্ব সরোয়ার হোসেন বন্দ, মাওলানা মাসুম বিল্লাহ আলহাজ্ব শফিউল ইসলাম, মুফতি আব্দুর রহমান, জাতীয় ওলামা মাশায়েখ আইম্মা পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক মুফতি আলী আহমদ, জাতীয় শিক্ষক ফোরাম খুলনা মহানগর সভাপতি মুফতি রবিউল ইসলাম রাফি, জেলা সভাপতি মাওলানা শায়খুল ইসলাম বিন হাসান, মাওলানা এমদাদুল হক, মাওলানা মাহবুবুর রহমান, ইসলামী শ্রমিক আন্দোলন খুলনা মহানগর সভাপতি মোঃ আবুল কালাম আজাদ, জেলা সভাপতি আলহাজ্ব জাহিদুল ইসলাম, নগর সাধারণ সম্পাদক জিএম মুরাদ হোসেন, জেলা সাধারণ সম্পাদক মুফতি হেলাল উদ্দিন শিকারি, ইসলামী যুব আন্দোলন খুলনা মহানগর সভাপতি আলহাজ্ব আবুল কাশেম, জেলা সভাপতি মোঃ মেহেদী হাসান, সাধারণ সম্পাদক মোঃ ইমরান হোসেন মিয়া, জেলা সাধারণ সম্পাদক মুফতী ফজলুল হক, ইসলামী ছাত্র আন্দোলন খুলনা মহানগর সভাপতি মোহাম্মদ মঈন উদ্দীন, জেলা সভাপতি মোহাম্মদ এনামুল হাসান সাঈদ, ইব্রাহিম ইসলাম আবির, মোঃ আবু রায়হান, নগর সাধারণ সম্পাদক মোঃ আব্দুল্লাহ আল মামুন, জেলা সাধারণ সম্পাদক মোল্লা ফরহাদ হোসেন প্রমুখ। ইসলামী ছাত্র মজলিস খুলনা মহানগর শাখা আজ ১০ জুন শুক্রবার জুমার নামাজের পর এ বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করে। নগরীর ইসলামপুর মোড় চত্বর থেকে মিছিলটি বের হয়ে গুরুত্ব মোড় প্রদক্ষিণ করে পূণরায় ইসলামপুর মোড়ে শেষ হয়। খুলনা মহানগর সভাপতি সাজ্জাদুল্লাহ রায়হানীর সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল পূর্ব সমাবেশে প্রধান অতিথি বক্তব্যে খেলাফত মজলিসের নায়েবে আমীর মাওলানা সাখাওয়াত হোসাইন বলেন, ইন্ডিয়ার বিজেপির মূর্খ জাহেল নেতারা আমাদের নবীকে যে কটুক্তিমূলক বক্তব্য দিয়েছে তা চরম অশ্লীল ও বর্বরোচিত। সারা বিশ্বের ২০০কোটি মুসলমানদের অন্তরে আঘাত এনেছে। অনতিবিলম্বে ভারতকে রাষ্ট্রীয়ভাবে সারা বিশ্বের মুসলমানদের কাছে অনতিবিলম্বে ক্ষমা চাইতে হবে।নতুবা সারা বিশ্বের মুসলিম অধ্যুষিত রাষ্ট্রগুলির প্রতি ইন্ডিয়ার সাথে সকল কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করে, তাদের সকল পণ্য বয়কট করার আহবান জানান। এ সময় বক্তারা ভারতকে ঐ দুই নেতাকে দ্রুত গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন। সেই সাথে বাংলাদেশ সরকারকে চলতি সংসদে এই বক্তব্যের বিরুদ্ধে নিন্দা প্রস্তাব দেওয়ার জন্য সরকারের প্রতি আহব্বান করেন। বক্তব্য রাখেন খেলাফত মজলিসের নগর সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট শহিদুল ইসলাম, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ এর নগর সাধারণ সম্পাদক শেখ মোঃ নাসির উদ্দীন, জামান বিন রায়হান, মোঃ ফয়জুল্লাহ সিদ্দিকী, ইমদাদল্লাহ আজমী ডালিম, মাওঃ জাকারিয়া, শেখ মোঃ মতিউর রহমান, শেখ মিজানুর রহমান, মোঃ শাহিন শেখ, হাঃ শোয়াইব আহমাদ, মাষ্টার আবুল হোসেন, মোঃইব্রাহীম, মোঃ মোহাম্মাদুল্লাহ হাফেজী, মোঃআবিদ হাসান, মোঃইয়াছিন আরাফাত প্রমুখ

Leave a Reply

Your email address will not be published.