সিরাজগঞ্জের এনায়েতপুরে যমুনার ভাঙন এলাকা পরিদর্শন করেছেন পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রধান প্রকৌশলী মো. জহিরুল ইসলাম। ভাঙন কবলিত এনায়েতপুর থানা এলাকার ব্রাহ্মনগ্রামসহ যমুনার ডান তীরের বিভিন্ন এলাকা বুধবার বিকেলে পরিদর্শন করেন তিনি। পরিদর্শন শেষে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, যমুনার ভাঙন রোধে ইতোমধ্যেই সাড়ে ৬শ কোটি টাকার প্রকল্প অনুমোদন হয়েছে এবং কাজও শুরু হয়েছে। বর্তমানে নদীতে পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় ব্রাহ্মনগ্রামসহ কয়েকটি স্থানে ভাঙন দেখা দিয়েছে।

স্থানীয় পাউবো এ ভাঙ্গন ঠেকাতে ইতিমধ্যেই জিও ব্যাগ নিক্ষেপ করছে। তবে বর্ষা মৌসুম শেষে এখানে স্থায়ী বাঁধের কাজ শুরু করা হবে। প্রকল্প মেয়াদ শেষের আগেই এনায়েতপুরের ব্রাহ্মনগ্রাম থেকে পাঁচিল পযন্ত সাড়ে ৬ কিলোমিটার নদীর ডান তীর রক্ষার কাজ শেষ হবে। তবে এ ভাঙ্গন নিয়ে এখন আতংকের কিছু নেই। এদিকে গত এক সপ্তাহে ব্রাহ্মনগ্রামসহ কয়েকটি স্থানে নদী ভাঙন শুরু হয়েছে। এ ভাঙ্গনে ব্রাহ্মনগ্রাম পূর্বপাড়া তারকা জামে মসজিদসহ প্রায় অর্ধশত বসত ভিটা নদী গর্ভে বিলীন হয়েছে। এ ভাঙ্গন রোধে স্থানীয় পাউবোর কর্মকর্তাদের কোন অবহেলা বরদাস্ত করা হবে না। এ সময় স্থানীয় পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী শফিকুল ইসলামসহ অনান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Don`t copy text!