1702811534619

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের নামে প্রতিষ্ঠিত রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির ২০২৪ মেয়াদের নির্বাচনে “বাঙালি জাতীয়তাবাদ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজ” জয়লাভ করেছে। আজ ১৭ ডিসেম্বর থেকে তারা দায়িত্বভার গ্রহণ করেছে।

নির্বাচনে ফখরুল-রিফাত পূর্ণ প্যানেলে বিজয়ী হয়েছে । এই প্যানেলের সভাপতি পদে বাংলা বিভাগের চেয়ারম্যান ড. মো: ফখরুল ইসলাম, সহ-সভাপতি পদে সমাজবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ তানভীর আহমেদ, কোষাধ্যক্ষ পদে বাংলা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. মাইনুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক পদে সমাজবিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান মো: রিফাত-উর-রহমান, যুগ্ম সম্পাদক পদে অর্থনীতি বিভাগের চেয়ারম্যান শারমিন সুলতানা, কার্যনির্বাহী সদস্য পদে অর্থনীতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক বরুণ চন্দ্র রায়, অর্থনীতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক বিজন কুমার, ম্যানেজমেন্ট বিভাগের চেয়ারম্যান নুসরাত জাহান এবং সংগীত বিভাগের সহকারী অধ্যাপক দেবশ্রী দোলন জয়লাভ করেছে। উল্লেখ্য, নবনির্বাচিত কমিটির মেয়াদ আগামী একবছর।

এ বিষয়ে শিক্ষক সমিতির নবনির্বাচিত সভাপতি ড. মো: ফখরুল ইসলাম সমিতির সদস্যবৃন্দকে ধন্যবাদ জানান তাদের সমর্থনদানের জন্য । তিনি বলেন, সাংস্কৃতিক বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় তার অগ্রযাত্রা অব্যাহত রেখেছে। বিশ্ববিদ্যালয় নিমার্ণে শিক্ষকদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে হবে। এমন এক প্রেক্ষাপটে আমরা দায়িত্ব গ্রহণ করতে যাচ্ছি। শিক্ষক -শিক্ষার্থীদের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথের নামের প্রতি সুবিচার করবে এই প্রত্যাশা। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং তাঁরই সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা দুজনেই রবীন্দ্র অনুরাগী। বিশ্বজনের নিকট রবীন্দ্রনাথকে চিরসমুজ্জ্বল রাখতে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় সদা সচেষ্ট।

নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক মো: রিফাত-উর-রহমান বলেন, রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রাতিষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু হয়েছে ২০১৮ সালে। ধীরে ধীরে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিসর বৃদ্ধি পাচ্ছে। রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল শিক্ষক যেন তাদের ন্যায্য অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে পারে এবং একইসাথে বাঙালি জাতীয়তাবাদ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাস রেখে প্রগতিশীল সমাজ গড়ে তুলতে সক্ষম হয়, সে লক্ষ্য নিয়ে আমরা কাজ করতে বদ্ধপরিকর। হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিল বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের নামে একটি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করা। বঙ্গবন্ধুর সে স্বপ্নের বাস্তবায়ন করেছেন তাঁরই সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা। যেহেতু বিশ্বকবির নামে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হয়েছে, তাই এই বিশ্ববিদ্যালয়কে বিশ্বমানের প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তুলতে হলে শিক্ষার পাশাপাশি শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের জন্য মানসম্মত গবেষণার পরিবেশ নিশ্চিত করা আমাদের অন্যতম প্রধান দায়িত্ব। আমরা এই দায়িত্ব যেন সুচারুরুপে পালন করতে পারি এই প্রত্যাশা আমাদের সকল শিক্ষক ও শিক্ষার্থীর কাছে।

রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির ২০২৪ মেয়াদের নির্বাচনে জয়লাভ করার জন্য ড. মো: ফখরুল ইসলাম ও মো: রিফাত-উর-রহমান রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল শিক্ষকদের প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *