রাজশাহীতে দুই ছাগল চোর আটক পুলিশের হ্যান্ডকাপ ও মোটর সাইকেলসহ ছাগল উদ্ধার
মাসুদ আলী পুলক রাজশাহী ব্যুরোঃ-ভোলাহাটের কোন এক গ্রামে একটি ছাগল চুরি করে কথিত সাংবাদিক এসএম রানা (৪২) ও তার সহযোগী চোর শফিকুল ইসলাম অরফে শফিকুল (২৭)।
এরপর কৌশলে তারা তাদের ব্যবহৃত (১৫০ সিসি) এ্যপাচি মোটরসাইকেলের (১১-১৯০৪) মাঝস্থানে তুলে নেয় ছাগলটি। বাইক ড্রাইভ করছিলো কথিত সাংবাদিক রানা। আর ছাগল জাপটে ধরে বাইকের পেছেনে বসে ছিলো চোর শফিকুল। কিন্তু ওই যে কথায় আছে, চোরের দশ দিন আর পুলিশের একদিন। ছন্দটাও মিলে গেছে। দির্ঘপথ পাড়ি দিয়ে আসলেও ভাগ্য তাদের সাথ দেয়নি। ধরা পড়েছে কাশিয়াডাঙ্গা পুলিশের হাতে।
রোববার (২৯ মে) দিবাগত রাত পৌনে ১১টার দিকে রাজশাহী মহানগরীর কাশিয়াডাঙ্গা থানার কোট স্টেশন মোড় থেকে তাদের গ্রেফতার করে পুলিশ। এ সময় তাদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় চুরি করা ছাগল, একটি সরকারি চায়না হাতকড়া ও রানা নামের কথিত সাংবাদিকের পকেটে ভেতর থেকে একটি ক্রাইম ওয়াচ অনলাইন নিউজ পোর্টালের আইডি।
গ্রেফতার কথিত সাংবাদিক এবং ছাগল চোর এসএম রানা চাপাইনবাবগঞ্জের ভোলাহাট থানার রাধানগর গ্রামের মৃত নিজাম উদ্দিনের ছেলে। বর্তমানে মহানগরীর  শাহমখদুম থানার দুরুলের মোড়ের একটি বাড়িতে থাকেন।
তার সহযোগী চোর শফিকুল ইসলাম অরফে শফিকুল নওগাঁ জেলার মান্দা থানার আব্দুল আজিজের ছেলে।
জানতে চাইলে কাশিয়াডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ এসএম মাসুদ পারভেজ বলেন, ভোলাহাট থেকে ছাগল চুরি করে বাইকে তুলে রাজশাহী মহানগরীতে আসে রানা ও শফিকুল নামের দুই চোর। রাত পৌনে ১১টায় দামি মোটরসাইকেলে ছাগল! টহল পুলিশের নজরে আসতেই তাদের সন্দেহ্ হয়। দেরি না করে দ্রুত তাদের আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে পুলিশ। তাদের কথাবার্তা অসংলগ্ন মনে হলে। তাদের শরীর তল্লাশী চালায় পুলিশ। এ সময় তাদের কাছ থেকে পুলিশের ব্যবহৃত একটি চায়না হাতকড়া উদ্ধার করা হয়। এরপর তাদের থানার নিয়ে আসা হয়। তাবে রানা নিজেকে সাংবাদিক পরিচয় দিয়েছে। তার পকেট থেকে ক্রাইম ওয়াচ নামের একটি অনলাইন নিউজ পোর্টালের আইডিও উদ্ধার করা হয়েছে। বর্তমানে চুরি করা ছাগলটি পুলিশ হেফাজতে রয়েছে
জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। বিস্তারিত সোমবার সকালে জানানো হবে বলেও জানান ওসি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.