জুয়েল আহমেদ : :
রাজশাহী নজরুল পরিবারের আয়োজনে কেক কাটা, আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১২৩তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন করা হয়েছে।

আজ বুধবার (২৫ মে) বিকেলে নগর ভবনের সরিৎদত্ত গুপ্ত সভাকক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য ও রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ডা. আনিকা ফারিহা জামান অর্ণা।অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ডা. আনিকা ফারিহা জামান অর্ণা বলেন, ‘কবি কাজী নজরুল ইসলামকে জাতীয় কবির মর্যাদা ও সম্মান দিয়েছেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। আমাদের সবাইকে গুরুত্বসহকারে আমাদের জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম সম্পর্কে জানতে হবে। একাডেমি পড়াশোনার বাইরে সবাইকে গল্প, কবিতা, উপন্যাস পড়ার জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি। একাডেমিক পড়াশোনার বাইরে আমরা যত বেশি বই পড়বো, তত বেশি জানতে পারবো।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমাদের কষ্ট লাগে এখনো রাজশাহীতে আমাদের জাতীয় কবির কোন ম্যুরাল তৈরি হয়নি। যদি জাতীয় কবির ম্যুরাল থাকতো তাহলে সেখানে আমরা আজকে শ্রদ্ধা জানাতে পারতাম। আশা করি ভবিষ্যতে রাজশাহীতে কবি কাজী নজরুল ইসলামের ম্যুরাল স্থাপন করা হবে।’

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের অধ্যাপক ড. গুলনাহার বেগম। অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন রাজশাহী নজরুল একাডেমির প্রাক্তন সভাপতি আরিফা বেগম, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের ১৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল মমিন, ১৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন আনার প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.