received 395898826118496

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

গত ২৮ ডিসেম্বর ২০২৩ বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে রাজশাহী জেলাধীন গোদাগাড়ী উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ মাহবুবুল আলম, রাজশাহী জেলাধীন গোদাগাড়ী উপজেলার বাসুদেবপুর ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি মোঃ আব্দুল হান্নান, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ মানিক – কে দলীয় শৃঙ্খলা পরিপন্থী কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির প্রাথমিক সদস্যপদ সহ সকল পর্যায়ের পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।
গত ২৪ ডিসেম্বর একাধিক প্রিন্ট মিডিয়ায় প্রকাশিত “গোদাগাড়ীতে বিএনপির অফিস তালাবদ্ধ করেছে ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি” শিরোনামের উপর ভিত্তি করে এবং বাসুদেবপুর ইউনিয়ন বিএনপির একাধিক নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষের তথ্যের ভিত্তিতে জানা যায় গোদাগাড়ী উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ মাহবুবুল আলম এর বাসস্থান উক্ত ঘটনা সংঘটিত বাসুদেবপুর ইউনিয়নে হওয়ার সুবাদে ইউনিয়ন বিএনপির সকল কার্যক্রম তার নির্দেশনা মোতাবেক পরিচালিত হয় এবং কি বর্তমান ইউনিয়ন বিএনপির কমিটি গত ১২ নভেম্বর ২০২০ সালে ৩৭ সদস্য বিশিষ্ট কোন নির্বাচন ছাড়া স্থানীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে কোন আলোচনা বা মতামতের তোয়াক্কা না করে দলীয় আইনশৃঙ্খলা অমান্য করে ঘরে বসে মাহবুবুল আলম একক ক্ষমতার অপব্যবহার করে তার মনোনীত অযোগ্য ব্যক্তিবর্গ কে বিএনপির মতো একটি বৃহৎ সংগঠনের দায়িত্বে বসিয়েছেন যার ফলস্বরূপ আজকে দেশব্যাপী বিএনপির চলমান আন্দোলনে উপলব্ধি করছে। বিএনপির চলমান আন্দোলনে তাদের কোন ভূমিকা নেই। দীর্ঘদিন যাবত তারা সকলেই নিষ্ক্রিয়। দায়িত্বশীলেরা আওয়ামিলীগের সঙ্গে আতাত করে উল্টো বিএনপিকে ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে যাওয়ার এক বিশাল ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে যার ফলশ্রুতিতে গত ২৩ ডিসেম্বর গোদাগাড়ী উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ মাহবুবুল আলম এর পরামর্শক্রমে এবং তার নির্দেশনায় ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি মোঃ আব্দুল হান্নান কর্তৃক বাসুদেবপুর ইউনিয়নের কামারপাড়া (অভয়া বাজার) এ অবস্থিত বিএনপির দলীয় কার্যালয় ভাঙচুর করে এবং অফিসে টাঙ্গানো বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান, সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি তারেক রহমান, সাবেক মন্ত্রী ব্যারিস্টার ব্যারিস্টার আমিনুল হক সহ সকলের ছবি, পোস্টার, ফেস্টুন ঘরের বাইরে ছুড়ে ভেঙ্গে ফেলে। যা স্থানীয় বিএনপি ও সাধারণ জনগণের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।
আরো তথ্য নিয়ে জানা যায় ইতিমধ্যে ইউনিয়ন বিএনপির সহ-সভাপতি আলহাজ্ব হাবিবুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ মানিক, সহ-সম্পাদক ছাত্র বিষয়ক মোঃ মেসবাহুল হক সোহেল আনুষ্ঠানিক ভাবে আওয়ামিলীগে যোগদান করেছেন এবং নৌকা প্রতীকের পক্ষে নির্বাচনী মাঠে কাজ করছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *