সোহেল রানাঃ
রাজারহাট(কুড়িগ্রাম)প্রতিনিধিঃ


কুড়িগ্রামের রাজারহাটে ভিজিএফ’র প্রায় ৩০ বস্তা সরকারি চাউল কালোবাজারে পাচারকালে জনতার হাতে আটক হয়েছে। শুক্রবার চাকিরপশার ইউনিয়নের মিলের পাড় বাজারে স্হানীয় জনগণের হাতে সরকারি চাল আটকের এ ঘটনা ঘটে। তথ্য সূত্রে জানা যায় শুক্রবার ভোরে রাজারহাট উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলামের রাজারহাট রেল স্টেশনের গুদাম ঘর থেকে ৩০ বস্তা চাল গোপনে রাজারহাট খাদ্য গুদামে ঢোকার চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে কালো বাজারে পাচারের উদ্দেশ্যে চাকিরপশার ইউনিয়নের মিলের পাড় বাজারের আলিফ অটো রাইস মিলের সামনে নিয়ে এলে স্থানীয় লোকজন সরকারি চালের বস্তা গুলো দেখতে পেয়ে আটক করে। এ সময় জনগণের মাঝে উত্তজনা ছড়িয়ে পড়লে অবস্হা বেগতিক দেখে সরকারি চাল বহনকারী টলির ড্রাইভার চালের বস্তাগুলো রেখে কৌশলে ঐ স্হান থেকে সটকে পরে। এ সময় এলাকার লোকজন আটককৃত সরকারি চালের বস্তার বিষয় উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও থানা পুলিশকে অবহিত করার সিদ্ধান্ত নিলে মুহুর্তেই ঘটনাস্হলে চলে আসেন রাজারহাটের বিশিষ্ট চাল ব্যাবসায়ী ইকবাল হোসেন রাজু আহমেদ। তিনি উক্ত চালের মালিক বলে দাবী করে প্রাথমিক পর্যায়ে জনসাধারণকে বিভিন্ন হুমকি ধামকি প্রদর্শন করে আটককৃত চাল উদ্ধারে ব্যর্থ হয়ে কুট কৌশল অবলম্বন করে পরবর্তিতে মোটা অংকের টাকায় রফা দফা করে চালের বস্তা গুলি আলিফ অটো রাইস মিলে আনলোড করে। যার একটি ভিডিও ফুটেজ ইতিমধ্যেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। এ নিয়ে রাজারহাট উপজেলাজুড়ে জনসাধারণের মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। অনেকের দাবী এ সব কালোবাজারি চক্রের রাজারহাটে অবস্হিত অন্যান্য খাদ্য গুদামে অভিযানে পরিচালা করে সরকারি চাল উদ্ধার পূর্বক আইনগত ব্যবস্হা গ্রহনের দাবী সচেতন মহলের। এ ব্যাপারে নাম প্রকাশ না করার শর্তে মিলের পাড় বাজার এলাকার কয়েকজন প্রত্যক্ষদর্শী বলেন- রাজু আহমেদ সরকারি চাল কালো বাজারে বিক্রি করার জন্য আমাদের এলাকার এই আলিফ মিনি অটো রাইস মিলকে দীর্ঘদিন থেকে ব্যবহার করে আসছে। এখানে প্রায় সময় গভীর রাতে ও ভোরে সরকারি চাল নিয়ে এসে বস্তা পরিবর্তন করে এবং খাবার অনুপোযোগী চাল মিশ্রন করে প্যাকেট করে গুদামজাত করে থাকে। এ বিষয়ে ইকবাল আহমেদ রাজুর সঙ্গে মুঠো ফোনে চাল আটকের বিষয় জানতে চাইলে তিনি বলেন- আপনাদের মন যা চায় লিখেন কোন সমস্যা নেই।
এ বিষয়ে রাজারহাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নূরে তাসনিম বলেন,বিষয়টি জানা ছিল না। ওসি (এলএসডি)’র সঙ্গে কথা বলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.