মোঃ ইকবাল মোরশেদ স্টাফ রিপোর্টার।

নিরাপদ শ্রম অভিবাসন প্রক্রিয়ায় সাংবাদিকদের সম্পৃক্তকরণের মাধ্যমে বিদেশগনেচ্ছু, বিদেশগামী এবং বিদেশ ফেরত অভিবাসী কর্মীসহ জনসাধারণের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষে গতকাল শনিবার (১১ জুন ২০২২) উপজেলা পরিষদ মিলানায়তন, লাকসাম, কুমিল্লায় অভিবাসী তথ্য কেন্দ্র বাংলাদেশের আয়োজনে ৩০ জন সাংবাদিকদের নিয়ে নিরাপদ অভিবাসন বিষয়ক সচেতনতামূলক একটি মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রবাসী কল্যান এবং বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রাণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী ইমরান আহমেদ এর একান্ত সচিব আহমাদ কবীর।

এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোছাঃ মাহফুজা মতিন, সহকারী কমিশনার (ভূমি) ফারহানুর রহমান,পৌরসভার নির্বাহী কর্মকর্তা নিলুফা ইয়াসমিন চৌধুরী, কারিগরি প্রশিক্ষন কেন্দ্র কুমিল্লার অধ্যক্ষ ইঞ্জিনিয়ার মোঃ কামরুজ্জামান।

সভাপতিত্ব করেন কুমিল্লা জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিসের সহকারি পরিচালক দেবব্রত ঘোষ। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন অভিবাসী তথ্য কেন্দ্র বাংলাদেশের কাউন্সেলর এস এম রিফাত শাহরিয়ার, মোঃ গোলাম মোস্তফা এবং অনান্য সরকারী কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ।

অভিবাসী তথ্য কেন্দ্রের কাউন্সেলর এস এম রিফাত শাহরিয়ারের সঞ্চাচালনায় উক্ত কর্মশালায় স্বাগত বক্তব্যে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোছাঃ মাহফুজা মতিন লাকসাম উপজেলার অভিবাসন চিত্র তুলে ধরেন এবং সরকার গৃহীত পদক্ষেপ সম্পর্কে সাংবাদিকদের অবহিত করেন।

কারিগরি প্রশিক্ষন কেন্দ্র কুমিল্লার অধ্যক্ষ ইঞ্জিনিয়ার কামরুজ্জামান টিটিসি এর বিভিন্ন প্রশিক্ষণ এবং সুযোগ সুবিধা সম্পর্কে আলোকপাত করেন । দেবব্রত ঘোষ বলেন, অভিবাসনকে নিরাপদ, সুষ্ঠ, নিয়মিত করতে সকল শ্রেনী পেশার মানুষের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা আছে।

কুমিল্লা যেহেতু দেশের অন্যতম মাইগ্রেশন প্রবন অঞ্চল, সেহেতু সাংবাদিকরা খুব সহজে অভিবাসনের সঠিক বার্তা শহরাঞ্চল এবং গ্রামঞ্চলে পৌঁছে দিতে যাতে সাধারণ মানুষ দালালের হাত থেকে রক্ষা পায়।

দেবব্রত ঘোষ প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের মাধ্যমে প্রবাসীদের জন্য ঋণ এবং এর ঋণ পাওয়ার উপায় সম্পর্কে আলোচনা করেন। এছাড়াও তিনি নারী অভিবাসনের ঝুঁকি, সম্ভাবনা,
এবং সুবিধাসমূহ উল্লেখ করেন। এছাড়াও তিনি RPL-এর মাধ্যমে কিভাবে প্রবাস ফেরত কর্মীগণ তাদের দক্ষতাকে প্রতিষ্ঠানিক রুপ দেয়া যায়, সে সম্পর্কে সকলকে অবহিত করেন।

কর্মশালায় প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়, জনশক্তি, কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো, ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ড, প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক, বোয়েসেল,
বিদেশে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসে অবস্থিত শ্রম কল্যাণ উয়িং এবং বায়রা’র কার্যক্রম নিয়ে বিশদ আলোচনা করেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.