লালপুর নাটোর প্রতিনিধি:নাটোরের লালপুরে জমিজমা সংক্রান্ত দ্বন্দের জেরে জামিনে মুক্তি পেয়ে তাইফুল ইসলাম টিনু (২৭) নামে এক যুবককে মারধরের অভিযোগ উঠেছে প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে। এঘটনায় ওই যুবকের ভাবি চায়না খাতুন (৩৫) নিজের ও পরিবারের নিরাপত্তা চেয়ে ডাকযোগে নাটোর জেলা পুলিশ সুপার বরাবর অভিযোগ করেছে বলে জানা গেছে।

অভিযোগ সূত্র জানা যায়, উপজেলার বিলামাড়িয়া বাজারে গত ১৬ জুলাই জমিজমা সংক্রান্ত দ্বন্দের জেরে তাইফুল ইসলাম টিনু নামে এক যুবককে মারধর করে উপজেলার মোহরকয়া গ্রামের রাকিব মোল্লা, লিটন মোল্লা, সেন্টুসহ অনন্ত ৯ জন। এবিষয়ে মামলা করলে আবারও মারধর করা হবে বলে হুমকি-ধামকি দেয়। এতে করে অসহায় পরিবারটি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়।

এবিষয়ে ভুক্তভোগী পরিবার বলেন, দুই মাস আগে আমাদের জমিতে জোরপূর্বক ভরাট উত্তোলন করলে আমরা বাধা দেয়, এতে তারা আমাদের মারধর করে। পরবর্তীতে উভয় পক্ষের পাল্টাপাল্টি মামলায় দুই পক্ষের লোকজনই আদলত থেকে জামিন নিয়ে আসে। পরে গত ১৬ জুলাই বিলমাড়িয়া বাজারে তাইফুল ইসলাম টিনুর পথরোধ করে মারধর করে এবং মোটরসাইকেল ভাংচুর করে। এঘটনায় আমরা পরিবারসহ জীবনের নিরাপত্তা নিয়ে আতঙ্কের মধ্যে আছি।

বাদী চায়না খাতুন আরো বলেন, আমরা বাড়ির বাহিরে যেতে পারছি না, বাজারঘাট, এমনকি হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য গেলেও প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে, মারধর করছে। বাড়িঘর লুটপাট করছে। তাদের অত্যাচারে গরু ছাগল বিক্রি করে দিয়েছি। আমরা খুব অসহায় হয়ে পড়েছি। আমাদের পাশে আল্লাহ ছাড়া কেউ নাই। বাধ্য হয়ে ডাকযোগে মাননীয় পুলিশ সুপার স্যারের কাছে অভিযোগ পাঠিয়েছি। সঠিক ঘটনা তদন্ত করে স্যার যথাযথ ব্যবস্থা নিবে বলে আশা করি।

এ বিষয়ে অভিযুক্তদের সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করলে তারা হুমকির বিষয়টি অস্বীকার করেন।

লালপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোনোয়ারুজ্জামান বলেন, এ বিষয়ে থানায় কেউ অভিযোগ নিয়ে আসনে নি। অভিযোগে পেলে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.