সাইফুল আলম দুলাল কেন্দুয়া প্রতিনিধিঃ

নেত্রকোণার কেন্দুয়া উপজেলার ০৮ নং বলাইশিমুল ইউনিয়নের বলাইশিমুল খেলার মাঠে নির্মাণাধীন আশ্রয়ন প্রকল্প বিষয়ক মতবিনিময় সভা বুধবার (০৮ জুন) বিকালে কেন্দুয়া উপজেলা পরিষদ হল রুমে স্থানিয় সাংবাদিক জনপ্রতিনিধি ও আওয়ামীলিগের নেতৃবৃন্দ এবং সন্ধ্যায় বলাইশিমুল আশ্রয়ন প্রকল্পের খেলার মাঠে স্থানিয়দের নেত্রকোণা জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ মনির হোসেন এবং উপজেলা প্রশাসনের মতবিনিময় অনুষ্ঠিত হয়েছে।
ইউএনও মাহমুদা বেগমের সভাপতিত্বে প্রধান অথিতির বক্তব্যে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ মনির হোসেন বলেন, বলাইশিমুল গ্রামের খেলার মাঠে এলাকার জনগণের স্বার্থ বিবেচনা করে ১ একর ৮৭ শতাংশ ভূমি থেকে মাত্র ৪৬ শতাংশ ভূমিতে আশ্রয়ন প্রকল্পটি নির্মাণ করা হচ্ছে, এবং খেলার মাঠের জন্য রাখা হয়েছে ১ একর ৪১ শতাংশ ভূমি। প্রকল্প বাস্তবায়নের আগে ঐ খেলার মাঠেই উপজেলা প্রশাসন, স্থানীয় লোকজন, জনপ্রতিনিধি, দলীয় নেতৃবৃন্দের নিয়ে আলোচনা করে তারপর প্রকল্পের কাজ শুরু করা হয়েছে, তাহলে এখন বিরুদ্ধিতা কেন?
খেলার মাঠের সার্বিক সৌন্দর্য বৃদ্ধি, খেলার মাঠে যাওয়ার রাস্তাটির উন্নয়ন, বিদ্যুৎ ও বিশুদ্ধ পানিসহ বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ করা হবে এই প্রকল্প এলাকায়।
এসময় আরও বক্তব্য রাখেন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ নূরুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র মোঃ আসাদুল হক ভূঞা, উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান মোফাজ্জল হোসেন ভূঞা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সেলিনা জাহান সুমি, কেন্দুয়া থানার ওসি আলী হোসেন, বলাইশিমুল ইউপি চেয়্যারম্যান মোঃ ফজলুর রহমান, উপজেলা ও ইউনিয়ন আওয়ামীলাগের নেতৃবৃন্দ, সাংবাদিকগণ।
সন্ধ্যায় অশ্রয়ন প্রকল্পের এলাকায় গিয়ে খেলার মাঠে গ্রামের লোকজনের সাথে মতবিনিময় করেন জেলা প্রশাসক (সার্বিক)। এসময় তিনি বলেন আপনারা কেউ গুজবে কান দিবেন না। আপনাদের প্রাচীনতম এই খেলার মাঠ আপনাদেরই থাকবে। আপনাদের সকলের স্বার্থ বিবেচনা করে ১ একর ৮৭ শতাংশ ভূমি থেকে মাত্র ৪৬ শতাংশ ভূমিতে আশ্রয়ন প্রকল্প নির্মাণ করা হচ্ছে এবং অবশিষ্ট ১ একর ৪১ শতাংশ ভূমি খেলার মাঠের জন্য রাখা হয়েছে। আপনারা একটু ধৈর্য ধরুন এই খেলার মাঠটিতে খেলাধুলা করার জন্য সরকারের পক্ষ থেকে উন্নত করার জন্য প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ মনির হোসেনের এই আশ্বাস দেওয়ার সাথে সাথেই উপস্থিত স্থানীয় লোকজন খুশি হয়ে জেলা প্রশাসক (সার্বিক) সহ সকলকে ধন্যবাদ জানান এবং ঘর নির্মাণের জন্য তারা সহযোগীতার আশ্বাস দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.