হাকিকুল ইসলাম খোকন ,সিনিয়র প্রতিনিধিঃ
পররাষ্ট্র ক্যাডারের দশম ব্যাচের দুই এবং একাদশ ব্যাচের ছয় কর্মকর্তাকে সচিব পদে পদোন্নতি দিয়েছে সরকার। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের তরফে গতকাল তাদের পদোন্নতির আদেশ জারি হয়। মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন নিয়োগ শাখা-৩ এর উপ-সচিব মোহাম্মদ আবুল কালাম আজাদ স্বাক্ষরিত ওই আদেশে বলা হয়েছে, গত ২৮শে জুন অনুষ্ঠিত সুপিরিয়র সিলেকশন বোর্ডের সভায় (২০২২ সালের ১৮তম সভা) ওই ৮ কর্মকর্তার পদোন্নতির সুপারিশ করা হয়, যা গত ৭ই জুলাই চূড়ান্তভাবে প্রধানমন্ত্রী অনুমোদন করেন। পদোন্নতিপ্রাপ্তরা হলেন- দশম ব্যাচের মো. মনিরুল ইসলাম। যিনি বর্তমানে মিশরের রাজধানী কায়রোতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। ২. মো. গোলাম সারোয়ার, দশম ব্যাচের ওই কর্মকর্তা বর্তমানে কুয়ালালামপুরে বাংলাদেশের হাইকমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। ফরেন সার্ভিসের একাদশ ব্যাচের ৬ জন কর্মকর্তার সবাই সচিব পদে পদোন্নতি পেয়েছেন। তারা হলেন- ১. সাইদা মুনা তাসনীম, যিনি বর্তমানে লন্ডনে বাংলাদেশের হাইকমিশনার হিসেবে রয়েছেন।

২. মো. রুহুল আলম সিদ্দিকী, যিনি পাকিস্তানে বাংলাদেশের হাইকমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। ৩. মো. মোস্তাফিজুর রহমান, যিনি জেনেভায় বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ও স্থায়ী প্রতিনিধি হিসেবে রয়েছেন। দিল্লিতে পরবর্তী হাইকমিশনার হিসেবে তার বদলি হওয়ার প্রস্তাব রয়েছে।


৪. মোহাম্মদ আব্দুল মুহিত, যিনি বর্তমানে ভিয়েনায় বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত হিসেবে কাজ করছেন। চলতি মাসেই তিনি জাতিসংঘে বাংলাদেশ স্থায়ী প্রতিনিধির দায়িত্ব নিতে যাচ্ছেন। ৫. মো. শামীম আহসান, ইতালির রোমে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত হিসেবে কর্মরত। ৬. সুলতানা লায়লা হোসেন, যিনি পোল্যান্ডের ওয়ারশতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত হিসেবে রয়েছেন। লায়লা রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধে আটকে পড়া বাংলাদেশিদের উদ্ধারে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ অতিসম্প্রতি ‘বঙ্গবন্ধু মেডেল ফর ডিপ্লোমেটিক এক্সিলেন্স’ সম্মাননায় ভূষিত হয়েছেন। উল্লেখ্য, সরকারি আদেশ মতে, পদোন্নতিপ্রাপ্ত পররাষ্ট্রের ওই ৮ কর্মকর্তা এখন থেকে মন্ত্রণালয়ে সচিব বা ফরেন সার্ভিস একাডেমির রেক্টর কিংবা গ্রেড-ওয়ান অ্যাম্বাসেডর হিসেবে প্রটোকলসহ বিধি মোতাবেক সমুদয় সুযোগ-সুবিধা পাবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.