img 20240317 wa0006

 

মান্দা (নওগাঁ) প্রতিনিধি

নওগাঁর মান্দা উপজেলার তেঁতুলিয়া ইউনিয়নের শ্রীরামপুর গ্রামে দিনেদুপুরে অন্যের জমি দখল করে স্থাপনা নির্মাণচেষ্টা হয়েছে। অভিযোগ পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে দখলচেষ্টা বন্ধ করেছে পুলিশ।

জমিটির মালিক ওই গ্রামের কাওসার আলী। তিনি দৈনিক কালের কণ্ঠ পত্রিকার সহ-সম্পাদক। কাজের সুবাদে ঢাকায় থাকেন তিনি। কাওসারের অনুপস্থিতির সুযোগে একই গ্রামের ইসমাইল হোসেন জামাল (২৯) ও কামাল হোসেন (২৭) জমি বেআইনিভাবে দখল করে ঘর তোলার জন্য লোকজন ভাড়া করে এনে মাটি খনন শুরু করেন।

কাওসার আলী বলেন, সকালে বাড়ি থেকে মা ফোন করে জানায়, আমার জমিতে জামাল ও কামাল অন্য গ্রাম থেকে লোকজন নিয়ে এসে ঘর তোলার জন্য মাটি খনন করছে। আইনি সহায়তার জন্য ৯৯৯ নম্বরে ফোন করে মান্দা থানার ডিউটি অফিসারের সঙ্গে কথা বলে অভিযোগ করি। কিছুক্ষণের মধ্যে তিনি এসআই আমিনুল ইসলামকে ঘটনাস্থলে পাঠান। প্রতিবেশীদের কাছ থেকে সবকিছু শুনে দখলচেষ্টা বন্ধের নির্দেশ দেন এসআই আমিনুল।

তিনি আরো বলেন, পেশায় ট্রাকচালক জামাল-কামাল মাদকাসক্ত ছেলে। তারা দীর্ঘদিন ধরে জমিটি দখলের চেষ্টা করছে। আমাকে এর আগে মেরে ফেলার হুমকিও দিয়েছে। এ নিয়ে আগে থানায় অভিযোগ জানিয়েছিলাম। তদন্তে অভিযোগের সত্যতা পেয়ে কোর্টে প্রতিবেদন দিয়েছিল পুলিশ। জামাল ও কামাল কোর্টে উপস্থিত হয়ে ভুল স্বীকার করে মুচলেকা দিয়ে এসেছে। তারপর আবার তারা জমিটি দখলের চেষ্টা করছে। আমি এর সুষ্ঠু প্রতিকার চাই।

ঘটনাস্থলে উপস্থিত রেজাউল করিম বলেন, কাওসারের দুই জমির মাঝখানে জামালের মায়ের দুই শতক জমি এখানে আছে। কিন্তু জামালরা দুই শতকের বেশি জমিতে আগে থেকেই ঘর বানিয়ে আছে। এখানকার বাকি জমি কাওসারের। নতুন করে জামালের ঘর তোলার জায়গা এখানে নেই। তারপরেও ঘর তুললে সেটা জবরদখল হবে।

এ ব্যাপারে মান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোজাম্মেল হক কাজী বলেন, অভিযোগ পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। সেখানে ঘর তোলার কাজ বন্ধ রাখতে বলে এসেছেন দায়িত্বপ্রাপ্ত অফিসার। যেকোনো অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা এড়াতে আমরা তৎপর রয়েছি। উভয়পক্ষকে কাগজপত্র নিয়ে থানায় আসতে বলা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *