শরিফা বেগম শিউলী
স্টাফ রিপোর্টার

সিলেট বিভাগে ভারতের পাহাড়ী ঢল ও অতিবৃষ্টিতে ঘরবাড়ি তলিয়ে জনজীবনে অচলবস্থা নেমে এসেছে। গরু-মহিষ-ছাগল ভেসে যাচ্ছে। বিদ্যুৎ লাইন পানি ছুঁইছুই। নদীপাড়ের ঘরবাড়ি নদীগর্ভে বিলিন হয়ে যাচ্ছে চোখের সামনেই।

শুক্রবার (১৭ জুন) বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম (বিএমএসএফ) প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান ট্রাস্টিবোর্ড আহমেদ আবু জাফর কেন্দ্রীয় সভাপতি সোহেল আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক শিবলী সাদিক খান যুক্ত বিবৃতিতে বলেন দেশের সামর্থ্যবানদেরকে সিলেট সুনামগঞ্জ বন্যাকবলিত এলাকায় বিপন্ন মানুষের পাশে দাঁড়ানোর এখনই সময়। বিশুদ্ধ পানি, শুকনো খাবার নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নেওয়ার কাজ দ্রুত সম্পন্ন করতে হবে।

ঐতিহ্যবাহী সিলেটের মানুষের মাঝে এখন অনেকটা হাহাকার চলছে। বিশেষ করে সিলেট ও সুনামগঞ্জের মানুষেরা এ বন্যায় বেশি ক্ষতিগ্রস্থ। সুনামগঞ্জে বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি হচ্ছে! সামর্থ্যবানদের উচিত এগিয়ে আসা। এই মুহূর্তে তাহিরপুরসহ বহু এলাকায় প্রত্যেক ঘরে পানি, রান্নাবান্না বন্ধ, বিশুদ্ধ পানির অভাব, এসময়ে বন্যাকবলিত মানুষের জন্য শুকনো খাবারের বিশেষ প্রয়োজন।

দেশের ধর্নাঢ্য ব্যক্তি/ প্রতিষ্ঠানকে সাধ্যমত সহায়তা নিয়ে সিলেটের বানভাসি মানুষের পাশে দাঁড়ানো উচিৎ।

ইতিমধ্যে শিক্ষা মন্ত্রণালয় এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা স্থগিত করে সরকার বানভাসিদের সেবায় সেনাবাহিনী পাঠিয়েছেন। সেনাবাহিনী বানভাসিদের উদ্ধার করে নিরাপদ আশ্রয়ে নেয়ার চেষ্টা চালাচ্ছেন; আজ জুম্মাবাদ দেশের বিভিন্ন মসজিদে বানভাসিদের জন্য দোয়া করা হয়েছে। মহান রাব্বুল আলামিন সিলেটবাসিকে হেফাজত করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Don`t copy text!