received 271771249284622

সাথী সুলতানা,স্টাফ রিপোটার ;

সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে স্যালাইন খেয়ে জিম (৩) নামের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। এবং এ স্যালাইন খেয়ে একই পরিবারের আরও ৪জন অসুস্থ্য হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে।
মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) সকালে সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক শামীমুল ইসলাম এ বিষয়টি নিশ্চিত করেন।
তিনি জানান, সোমবার ইফতারের পর খাবার স্যালাইন খেয়ে অসুস্থ হয়ে জরুরি বিভাগে পাঁচজন রোগী আসে। এর মধ্যে জিম নামের এক শিশু হাসপাতালে পৌঁছানোর আগেই মারা যায়। বাকি চারজন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। নিহত শিশু জিম বেলকুচি উপজেলার বৈলগাছী গ্রামের কাইয়ুম উদ্দিনের মেয়ে।
এ ঘটনায় পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৪ জনকে আটক করেছে। বাকি অসুস্থরা হলেন— নিহত শিশুর মা পারভীন খাতুন, বোন রিয়া, নূরী ও মিথিলা আকতার। তবে এদের মধ্যে পারভীন খাতুন ও রিয়ার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদেরকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ এন্ড হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জানান চিকিৎসক।
নিহতের স্বজনরা জানায়, সোমবার স্থানীয় একটি দোকান থেকে দুটি টেস্টি স্যালাইন নেয় নিহত শিশুর মা পারভীন খাতুন। পরে স্যালাইন দুটি পানিতে মিশিয়ে ইফতার করেন তারা। এ সময় মুড়ি ও খেজুর খাওয়ার পাশাপাশি শিশুরাও স্যালাইনের পানি খায়। স্যালাইনের পানি খাওয়ার পরই তারা অসুস্থ হয়ে পড়ে। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে প্রথমে বেলকুচি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। সেখান থেকে সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হলে চিকিৎসক তিন বছরের শিশু জিমকে মৃত ঘোষণা করেন।
বেলকুচি থানার ওসি আনিছুর রহমান বলেন, বিষয়টি আমি অবগত হয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে দোকানদার আমিনুল ইসলাম, স্যালাইনের সেলসম্যান আনিছুর রহমান, হাফিজ শেখ ও সাগর হোসেনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় আনা হয়েছে। এঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *